‘হামলা হলেই গুলি’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৫ নভেম্বর: চেকপোস্ট কিংবা টহলকালে কোনোভাবে পুলিশের ওপর হামলা হলে নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশকে গুলি করার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। একইসঙ্গে চেকপোস্ট বসানোর সময় অন্তত একটি অস্ত্রের চেম্বারে গুলিভর্তি রাখতে বলেছেন তিনি। ঢাকা মহানগর পুলিশ সদর দফতরে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ডিএমপির বিভিন্ন জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) ও অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠককালে তিনি এ নির্দেশনা দেন।s
বৈঠকে উপস্থিত থাকা একজন উপ-কমিশনার (ডিসি) নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি যেন না হয়। কমিশনার সে নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া নিরাপত্তা জোরদার করতে নজরদারি বাড়াতে বলা হয়েছে।’
তিনি জানান, বৈঠকে কমিশনার বলেছেন, ‘টহল বা চেকপোস্টে পুলিশ গুলিবিদ্ধ হবে এবং সন্ত্রাসীরা গুলি করে চলে যাবে; পুলিশ গুলি করবে না, এটা হতে পারে না। নিজেদের রক্ষায় গুলি চালাতে হবে। এ ক্ষেত্রে কারোর অনুমতি লাগবে না।’
তিনি আরো জানান, পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য না থাকলে চেকপোস্ট না বসানোর জন্যও বলা হয়েছে। তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্ব পালনকালে পুলিশ সদস্যদের বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরতে বলা হয়েছে। এছাড়া চেকপোস্টে অন্তত একটি অস্ত্রে গুলিভর্তি করে রাখতে হবে।’
এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন, ‘অফিসিয়ালি এ ধরনের নির্দেশনা জারি করা হয়নি। তবে আন-অফিসিয়ালি পুলিশ সদস্যদের সতর্ক করা হয়েছে। এছাড়া পুলিশ আইনেও আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি করতে পারবে বলে উল্লেখ রয়েছে। কাজেই পুলিশের ওপর হামলা হলে প্রাণরক্ষার্থে গুলি চালাতে পারেন। সে ক্ষেত্রে অনুমতি লাগবে না।’
২২ অক্টোবর রাজধানীর গাবতলীতে চেকপোস্টে সন্ত্রাসীদের চুরিকাঘাতে পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক ইব্রাহিম নিহত হন। তার ১৩ দিনের মাথায় ৪ নভেম্বর সাভারের আশুলিয়ায় একইভাবে চেকপোস্টে পুলিশের ওপর হামলা করে সন্ত্রাসীরা। এতে কনস্টেবল মুকুল হোসেন নিহত হন। আহত হন নূরে আলম নামে এক পুলিশ সদস্য। এর পরই ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে দায়িত্বরত পুলিশকে সতর্ক করেছে পুলিশ সদর দফতর। সূত্র: শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

%d bloggers like this: