সুপারস্টার শাকিব খান লন্ডন থেকে ফিরেছেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০২ জুলাই ২০১৭, রবিবার: সম্প্রতি লন্ডন থেকে ফিরেছেন ঢাকাই সুপারস্টার শাকিব খান। লন্ডনে গিয়েছিলেন যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘চালবাজ’ এর শুটিং করতে। কিন্তু ক্যামেরা অন না হতেই দেশে ফিরে এসেছেন ‘নবাব’ খ্যাত শাকিব খান। আর এজন্য প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি হয়েছে প্রায় সোয়া কোটি টাকা। কেন ফিরে আসতে হলো শুটিং ছাড়াই? কালের কণ্ঠ অনলাইন সংস্করণে ইতোপূর্বেই প্রকাশিত হয়েছিল যে যৌথ প্রযোজনার নীতিমালা না মেনেই চালবাজের শুটিং দল যায় লন্ডনে। কিন্তু নীতিমালার বিষয়ে টালিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রির নাড়ি বেশ টনটনে। দেশের সীমানা নয় দেশের বাইরেই আটকে দেয় চালবাজের কাজ।
‘চালবাজ’ ছবির শুটিং বন্ধ করে সব টেকনিশিয়ানকে লন্ডন থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, সোয়া কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়েছে এসকে মুভিজের। বাংলা ছবির পড়তি বাজারে এই অঙ্কটা আকাশছোঁয়া। এই বিপুল অঙ্কের অর্থক্ষতি সামলে নতুন করে ছবির কাজে হাত দেওয়া প্রায় অসম্ভব। এমনটাই ভগ্ন হৃদয়ে জানালেন এসকে’র কর্ণধার অশোক ধানুকা।
ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘চালবাজ’ এর শুটিং লোকেশন ঠিক করা হয়েছিল লন্ডনে। কিন্তু শুটিং শুরুর দিনেই টালিগঞ্জের সিনে টেকনিশিয়ানসদের ফেডারেশন থেকে নির্দেশ আসে টেকনিশিয়ানরা যেন এ ছবির কাজ শুরু না করেন। এবং তাই-ই হয়েছে। বাধ্য হতে হয়ে চালবাজ টিমকে দেশে ফিরতে।
অশোক ধানুকার অভিযোগ টেকনিশিয়ানদের নেতা স্বরূপ বিশ্বাসের দিকে হলেও স্বরুপ স্পষ্টভাবে বলে দিয়েছেন, ‘এসকে মুভিজ প্রথমে ‘তুই শুধু আমার’ ছবির শুটিংয়ের জন্য চিঠি পাঠায়। সেখানে লিখিত ছিল ১৯ জন টেকনিশিয়ানকে নিয়ে কাজ করবেন, কিন্তু কার্যক্ষেত্রে ১২ জনকে নিয়ে যান এবং পরের ধাপে বাকি পাঁচ জনকে নিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু তা না করে ১২ জন টেকনিশিয়ান দিয়েই তিনি পুরো ছবির কাজ শেষ করেন, চালবাজ ছবির কথা উল্লেখও করেননি।
এর ফলে আটকে যায় ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘চালবাজ’ নিজ নিজ বাসায় ফিরতে হয় শুভশ্রী গাঙ্গুলি ও বাংলাদেশি সুপারস্টার শাকিব খানকে। ঈদের দিনও শাকিব বিরস বদনে লন্ডনে কাটান। ঈদের পরে দেশে ফেরেন এ তারকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*