সুইজারল্যান্ডের একটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় ৩ জন মুসল্লী আহত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ডিসেম্বর ২০, ২০১৬, মঙ্গলবার: সুইজারল্যান্ডের জুরিখ শহরে একটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় তিনজন সোমালীয় মুসলমান আহত হয়েছেন। পুলিশ জানায়, এক ব্যক্তি জুরিখের এইসগাসি স্ট্রিটের একটি ইসলামিক সেন্টারে হঠাৎ করে ঢুকে পড়ে এবং সেখানে নামাজ পড়তে আসা লোকদের ওপর গুলি চালায়।
হামলাকারীর উদ্দেশ্য সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ কোন মন্তব্য করেনি। জুরিখ পুলিশের মুখপাত্র মার্কো বিসা জানান, “গুলিবিদ্ধ তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদেরকে এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা যায়নি। আমরা ঘটনার সময় সেখানে উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শীদের খোঁজ করছি।”
অজ্ঞাতনামা হামলাকারী পালিয়ে গেছে এবং পুলিশ তার সন্ধান করছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে হামলাকারীর বয়স ত্রিশ-এর মতো এবং সে কালো পোষাক ও কালো ক্যাপ পরা ছিলো। তবে ঘটনাস্থলের কাছে একটি মৃতদেহ পাওয়া গেছে। বন্দুকধারীর হামলার সঙ্গে এই মৃতদেহের কোনও সম্পর্ক আছে কি না সে বিষয়েও কর্তৃপক্ষের কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার তারা বিস্তারিত জানাবেন বলে খবরে জানান হয়।
ঘটনাস্থলের লোকজন জানান, ইসলামিক সেন্টারটি মসজিদ হিসাবে ব্যবহার করা হয় এবং সেখানে মুসলমানরা বিশেষ করে সোমালি মুসলমানরা নামাজ পড়তে আসেন। প্রত্যক্ষদর্শী আবু বকর আবশিরো জানান, তিনি আহত তিন ব্যক্তিকে চেনেন। তারা সোমালীয় মুসলমান। তিনি বলেন, ২০১২ সাল থেকে ওই মসজিদ রয়েছে। কিন্তু এধরণের ঘটনা আগে ঘটেনি। কোনও বচসা বা বিত-ার ঘটনাও ঘটেনি। আমাদেরকে কখনই পুলিশের দ্বারস্থ হতে হয়নি।
উল্লেখ্য, সুইজারল্যান্ডের ৮৩ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে পাঁচ শতাংশের মতো অর্থাৎ চার লাখ মুসলমান। দেশটিতে মুসলমানদের জন্য মাত্র চারটি মসজিদ রয়েছে।
সম্প্রতি মধ্যপ্রাচ্য ও অন্যান্য স্থান থেকে আসা অভিবাসীদের কারণে দেশটিতে মুসলিমবিরোধী মনোভাব বাড়ছে।
সূত্র: প্রেসটিভি/ দ্য গার্ডিয়ান/আল-জাজিরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*