সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ও সহকারী পরিচালক জেল হাজতে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : বহুল আলোচিত সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অবশেষে জেল হাজতে গেলেন সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক (অব:) ডা. shyletইকবাল হোসেন চৌধুরী ও সহকারী পরিচালক স্বাস্থ্য (অব:) ডা. আব্দুল মুমিন চৌধুরী। বুধবার দুপুরে সুনামগঞ্জের স্পেশাল জজ আদালতে গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত উক্ত আসামিরা হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ বিচারক মো. ইসরাইল হোসেন জামিন নামঞ্জুর করে তাদের জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, ১০ ফেব্রুয়ারি এই মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত ৬ আসামির হাজির হওয়ার আদেশ ছিল। কিন্তু কেউ হাজির হননি। আজ উল্লেখিত দুইজন হাজির হন। মামলার অন্যান্য পরোয়ানাভুক্ত আসামিরা হলেন সিলেট বিভাগীয় সহকারী স্বাস্থ্য পরিচালক হালিম মিয়া, সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. হারিস উদ্দিন (সাবেক), সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাবেক) কামরুল আলম, সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের অফিস সহকারী আব্দুল খালেক। বর্তমানে মামলাটি সুনামগঞ্জের স্পেশাল জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ৩ এপ্রিল সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর ১২০ জন কর্মচারী নিয়োগ প্রদানে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ডের তৎকালীন সদস্য সচিব মুক্তিযোদ্ধা মালেক হোসেন পীর একই সালের ৬ মে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করে বিজ্ঞপ্তি সংশোধনের আহ্বান জানান। চাকুরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা না মানায় পরবর্তীতে তিনি মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন নং ৭০৪২/১০ দায়ের করেন। অপরদিকে ২০১৩ সালের ২২ এপ্রিল দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক শেখ আব্দুস সালাম বিষয়টি তদন্ত করে সুনামগঞ্জ সদর থানায় জিআর-৯৬/১৩ মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখিত ৬ জনকে আসামি করা হয়। সূত্র : শীর্ষনিউজডটকম

Leave a Reply

%d bloggers like this: