সারা দেশে নাশকতার প্রতিবাদে ১৪ দলের মানববন্ধন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : সারা দেশে নাশকতার প্রতিবাদে ১৪ দলের মানববন্ধন চলছে। 14১৪ দলের এ মানববন্ধনের সাথে সাধারণ মানুষ সংহতি প্রকাশ করে অংশগ্রহণ করেছেন। পল্টন থেকে শুরু হয়ে হাইকোর্ট পর্যন্ত এ মানববন্ধন চলছে। দেশব্যাপী এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে রোববার ৮ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩টা থেকে রাজধানী ঢাকার গাবতলী থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত সারিবদ্ধভাবে এ মানববন্ধনে অংশ নিয়েছেন ক্ষমতাসীন জোটের নেতাকর্মীরা। এ কর্মসূচি চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। গাবতলী থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত বিশাল এ মানবপ্রাচীরের ১৩টি স্পটে ১৪ দলের শীর্ষ নেতারা বিভক্ত হয়ে অংশ নিয়েছেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সংলগ্ন মানববন্ধন উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, মোহাম্মদ নাসিম, ওয়ার্কাস পার্টির নেতা রাশেদ খান মেনন, আওয়ামী লীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, মজিবুল হক প্রমুখ। মানববন্ধনে ১৪ দলের নেতারা বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করতে হবে। তিনি পেট্রোল বোমা মেরে মানুষের স্বাধীনতা ক্ষুন্ন করছেন। এ সময় খালেদা জিয়াকে পাকিস্তানে চলে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ১৪ দলের নেতা কর্মীরা। এ মানববন্ধনে ১৪ দল ছাড়াও, কৃষক, শ্রমিক, রিকসা শ্রমিক, বাস ড্রাইভার ও সর্বস্তরের জনগণ অংমগ্রহণ করেছেন। অপর দিকে, রাসেল স্কয়ার থেকে ধানমন্ডি ২৭ পর্যন্ত মানববন্ধনে উপস্থিত রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিম, নূহ উল আলম লেনিন, ক্যাপ্টেন (অব.) এবি তাজুল ইসলাম, ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, খ ম জাহাঙ্গীর হোসেন, আবু সাইদ মাহমুদ স্বপন, অসীম কুমার উকিল, ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পি, মাহজাবীন খালেদ, তারানা হালিম, সাবেক তথ্য কমিশনার জমির উদ্দিন প্রমুখ। মাববন্ধনের বক্তৃতায় শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, প্রচলিত আইনে জঙ্গি তৎপরতা না দমানো না গেলে, নতুন আইন করতে হবে। সে আইনে জঙ্গিবাদীর শাস্তি মৃত্যুদণ্ড রাখতে হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: