সাতকানিয়ায় পুলিশের উপর শ্রমিকের হামলা, মামলা দায়ের

এম এম রাজা মিয়া রাজু, ২৫ জুলাই ২০১৭, সোমবার: সাতকানিয়ার বিওসির মোড় এলাকায় ব্যস্ততম চট্টগ্রাম কক্্রবাজার সড়কের উপর শ্রমিকেরা যত্রেতত্রে গাড়ী রেখে যানজট করলে দোহাজারী হাইওয়ে থানার পুলিশ গাড়ী নির্দ্দিষ্ট জায়গায় রাখার জন্য নির্দেশ দেয়। কিন্তু তারা কথা কর্ণপাত না করে বরঞ্চ তর্কে লিপ্ত হয়। এর এক পর্যায়ে শ্রকিরা উত্তেজিত হয়ে পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। হাইওয়ে থানায় পুলিশের সংখ্যা কম হওয়ায় তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সাতকানিয়া থানার পুলিশের সহযোগিতা চান। তাদের সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়নত্রণে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার আনুমানিক রাত সাড়ে ৮টায়। তারা আসার আগেই হাইওয়ে থানার ৪ পুলিশ আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তাদের দোহাজারী হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে শ্রমিকরা দীর্ঘ দিন ধরে দক্ষিণ জেলাসহ পুরো জেলায় পরিবহন সেক্টরে অরাজকতা সৃষ্টি করে। তারা যাত্রীবাহী বাসে কারণে অকারণে ভাড়া বৃদ্ধি করে বসে। তাদের অন্যায় আবদারে কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে নাজেহাল করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। তাছাড়া সড়ক জুড়ে গাড়ী দাড়ঁ করে জ্যাম সৃষ্টি করে। যেন মগের মুল্লুক! আগে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত চালকেরা সড়কে গাড়ী চালার লাইসেন্স পেতেন। এখন লাইসেন্স এর প্রয়োজন হয় না । টাকা দিলে অনুমতি মেলে। এরফলে সড়কে প্রতিদিন কোন না কোন স্থানে দূর্ঘটনা ঘটে। এতে হতাহত হয় অনেকে। তাদের মধ্যে দেশের কর্ণধার রয়েছে। তাদের অকাল মৃত্যুতে দেশ মেধা শূন্য হতে চলেছে। সম্প্রতি চন্দনাইশের হাসিমপুর পাঠানীপুল এলাকায় এক সড়ক দূর্ঘটনায় ৮জন নিহত হয়েছে। এতে একজন মেধাবী ছাত্রী রয়েছে। শ্রাবন্তী নামে আরেক মেধাবী ছাত্রী ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। তার পিতা শিক্ষক অনুপ ধর সারা জীবনের সব সম্বল তার পিছনে বিলীন করে দেন। এই মেধাবী ছাত্রীকে বাচাঁনোর জন্য তার সহপাটিরা সকলের নিকট সাহায্য কামনা করেছেন। এসব অনাকাঙ্খিত ঘটনার দায় দায়িত্ব কেউ বহন করছে না। ঘটনার দায়ী ব্যক্তি চালক নামে ঘাতক শাস্তির বাইরে থেকে যাচ্ছে। এতে তারা সড়কে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে দ্বিধাবোধ করছে না। উল্লেখ্য করা যায় গতকালের ঘটনা। সরকারী রাস্তার উপর যত্রেতত্রে গাড়ী রেখে মানুষের জানমালের বিঘœ সৃষ্টি করে আরো উল্টো পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে। তারা এই দূঃসাহস কোত্থেকে পেয়েছে! বিষয়টি এলাকার মানুষকে ভাবিয়ে তুলেছে। জানা যায় তাদের পিছনে কতেক স্বার্থন্বেষী মহল জড়িত রয়েছে। যারা সমাজে ভাল মানুষ রুপে অবৈধ পয়সা জীবন যাপন করে। তাদের ইন্ধনে শ্রমিকরা আইনকে তোয়াক্কা না করে সড়কে যেনতেন করে যাচ্ছে। এই গন্ডি থেকে সমাজের ওই লোককে বের করে আনতে হবে। শ্রমিক নামধারী অপরাধীদের শাস্তির আওতায় আনার জন্য গণদাবি উঠেছে। এদিকে হাইওয়ে থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান ৩/৪ দিন আগে যানজট নিরসন নিয়ে শ্রমিক ও তাদের নেতাদের নিয়ে বৈঠক হয়েছে। এরপর ও সড়কে গাড়ী রেখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে। এব্যাপারে গতকাল রবিবার সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা হয়েছে। ফোরকান নামে একজনের নাম উল্লেখ করে আরো ২০/২৫জনকে অজ্ঞাত নামা আসামী করা হয়েছে বলে সূত্রেপ্রকাশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*