সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রী চাকরির নিয়োগপত্র পেয়েছেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, শনিবার: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে নিহত সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রী নুরুন্নাহার খাতুন চাকরির নিয়োগপত্র হাতে পেয়েছেন। সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর-এনায়েতপুর) আসনের সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে নুরুন্নাহারের হাতে রাষ্ট্রায়ত্ব ওষুধ কোম্পানি এসেনশিয়াল ড্রাগসে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন।
সরকার দলের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় গত ২ ফেব্রুয়ারি গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল। এর পরদিনই নিহত শিমুলের স্ত্রী নুরুন্নাহারকে তিন দিনের মধ্যে বগুড়ার সরকারি এসেনশিয়াল ড্রাগসে যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। এরপর গত বুধবার রাজধানী ঢাকার তেজগাঁওয়ে এসেনশিয়াল ড্রাগসের কার্যালয় থেকে নুরুন্নাহারের নিয়োগপত্র সংগ্রহ করেন সংসদ সদস্য স্বপন।
সাংবাদিক শিমুল ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তার ছেলে শাহজাদপুর পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ও মেয়ে স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেনে নার্সারি অধ্যায়নরত। নানির রেখে যাওয়া টিনের ঘর ছাড়া শিমুলের আর কোনো সম্পদ নেই।
এদিকে সাংবাদিক শিমুল হত্যার প্রধান আসামি সাময়িক বহিষ্কৃত সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরুকে কেন চূড়ান্তভাবে বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সিরাজগঞ্জের কারাগার সুপার আল-মামুন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মিরুর কাছে এই নোটিশ পৌঁছে দেওয়া হয়।
সাংবাদিক শিমুল হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মিরু ও তার ভাইসহ ১৮ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় এখন পর্যন্ত মিরুসহ আটজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাশপাশি, মিরুকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেয় আওয়ামী লীগ।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ প্রশাসক আব্দুল লতিফ বিশ্বাস বলেছেন, কেন্দ্রীয় কমিটির নোটিশে মিরুকে ১৫ দিনের মধ্যে লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*