সর্বাধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি গাড়িগুলো

নিউজগার্ডেন ডেস্ক :১৫ জানুয়ারি, ২০১৭

কনসেপ্ট গাড়ির মডেল দেখে বোঝা সম্ভব ভবিষ্যতে কোন ধরনের গাড়ি জনপ্রিয় হবে। গাড়ি নির্মাতারা তাদের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি করে ভবিষ্যতের এ গাড়িগুলো।
১. রাইনস্পিড ওয়েসিস
অদ্ভুত কনসেপ্ট গাড়ি নিয়ে এসেছে রাইনস্পিড। তারা সাম্প্রতিক কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স শোতে তাদের এ ওয়েসিস নামে গাড়িটি উন্মোচন করেছে। এ গাড়িটি শুধু গাড়িই নয় এটি যেন এক বাগান। এতে রয়েছে বনসাই গাছসহ বাগান তৈরির ব্যবস্থা। উইন্ডশিল্ডের পেছনেই রয়েছে সে বাগানটি। গাড়ির ভেতরে রয়েছে বিশাল টাচস্ক্রিন। এতে রয়েছে জেসচার ও ভয়েস কন্ট্রোল করার ব্যবস্থা। এছাড়া গাড়িটির সামনের বাধা-বিঘ্নও চালককে জানানোর ব্যবস্থা রয়েছে।

২. ফিয়াট ক্রাইস্টলার
ফিয়াট ক্রাইস্টলার নিয়ে এসেছে উচ্চ প্রযুক্তির আরেকটি কনসেপ্ট কার। এটি বৈদ্যুতিক চার্জে চলে ২৫০ মাইল। গাড়িটির বিভিন্ন সেন্সরও অত্যন্ত উন্নতমানের। গাড়টিতে রয়েছে তিনটি স্বয়ংক্রিয় ড্রাইভিং মোড।

৩. হোন্ডা নিউভি
হোন্ডা নিয়ে এসেছে নিউভি কনসেপ্ট কার। বৈদ্যুতিক শক্তিচালিত গাড়িটি সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে সক্ষম। গাড়িটিতে সংযোজিত হয়েছে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আরোহীদের আবেগ-অনুভূতি বুঝতে সক্ষম।
৪. ভক্সওয়াগেন মাইক্রোবাস
বিশ্বখ্যাত জার্মান গাড়ি নির্মাতা ভক্সওয়াগেন নিয়ে এসেছে এ মাইক্রোবাসটি। সম্পূর্ণ বৈদ্যুতিক শক্তিচালিত গাড়িটি একবার চার্জ করার পর একটানা ২৭০ মাইল চলতে সক্ষম। ভক্সওয়াগেন জানিয়েছে গাড়িটিতে রয়েছে লাইডার, রাডার, ক্যামেরা ও আল্ট্রাসনিক সেন্সর।

৫. টয়োটা ইউয়ি
টয়োটা নিয়ে এসেছে তাদের কনসেপ্ট কার ইউয়ি। গাড়িটিতে রয়েছে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স অ্যাসিস্ট্যান্ট, যার মাধ্যমে আপনি গাড়ির সঙ্গে রীতিমতো কথা বলতে পারবেন। গাড়িটির ভেতরের ডিসপ্লেগুলো দেখলেও যে কারো মাথা ঘুরে যাবে। এর দরজাটিও অদ্ভুত।

৬. বিএমডব্লিউ
বিএমডব্লিউয়ের কনসেপ্ট কার অন্য সব গাড়িকে যেন ছাড়িয়ে গেছে। গাড়িটি যেন ভবিষ্যতেরই প্রতিচ্ছবি। এতে রয়েছে সম্পূর্ণ নিজে থেকে চলার ব্যবস্থা। গাড়ির ভেতরে রয়েছে বিশ্রাম করার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। এমনকি বই রাখার জন্য একটি বুকশেলফও রয়েছে গাড়িতে। এছাড়া বিশাল স্ক্রিনের মাধ্যমে যে কোনো সিনেমা, গান বা রাস্তার দৃশ্য উপভোগ করার ব্যবস্থা রয়েছে।

৭. নিশান ভিমোশন
এবারের ডেট্রয়েট অটো শোতে প্রদর্শিত হয়েছে এ অসাধারণ গাড়িটি। এতে ব্যবহৃত হয়েছে দুই পাশে খোলা বিশাল দরজা। এতে রয়েছে নিশান প্রোপাইলট সিস্টেম, যা ৬২ মাইল গতিতে গাড়িটিকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালাতে পারে। গাড়ির ভেতরে রয়েছে একটি বড় ডিজিটাল ডিসপ্লে, যেখানে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বিনোদন উপভোগের ব্যবস্থা রয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: