সব দলের রাজনীতি করার সুযোগ থাকা দরকার : ড্যান ডব্লিউ মজিনা

imagesনিউজগার্ডেন ডেস্ক : গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে সব দলের রাজনীতি করার যথেষ্ট সুযোগ থাকা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজিনা। গত ১৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। গুলশানে-২’র ৭৯ নম্বর রোডে অবস্থিত খালেদা জিয়ার বাসায় এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দীন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ড্যান ডব্লিউ মজিনার সঙ্গে তার সহধর্মিনী মিসেস মজিনা এবং মার্কিন দূতাবাসের কয়েকজন কর্মকর্তাও উপস্থিত ছিলেন। খালেদা জিয়ার সঙ্গে টানা দেড় ঘণ্টা বৈঠক শেষে সন্ধ্যা পৌনে ৭ টায় বেরিয়ে যাওয়ার সময়, দরজায় সামনে দাঁড়িয়ে বক্তব্য দেন বিদায়ী মার্কিন রাষ্ট্রদূত। মজিনা বলেন, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় বিরোধী দলের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। আর গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে দেশের সব দলের জন্য রাজনীতি করার যথেষ্ট সুযোগ থাকা দরকার। টানা সাড়ে ৬ মিনিট বক্তৃতাকালে ড্যান ডব্লিউ মজিনা জানান, বিএনপির চেয়ারপারসনের সঙ্গে এটি ছিল তার বিদায়ী সাক্ষাৎ। সাক্ষাতকালে বাংলাদেশে কাজ করার অভিজ্ঞতা খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিনিময় করেছেন তিনি। বলেছেন বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় তার সফর অভিজ্ঞতা। ড্যান ডব্লিউ মজিনা বলেন, বাংলাদেশে দায়িত্বপালনকালে দু’চোখে এ দেশের যে অগ্রগতি দেখেছি, সেটিই বিএনপির চেয়ারপারসনের সঙ্গে শেয়ার করেছি। এদেশের শিক্ষা, চিকিৎসা, কৃষি বিপ্লব, বৈদেশিক আয়, মৎস্য, চামড়া শিল্প, ওষুধ শিল্পের যে অগ্রগতি চোখে পড়েছে সে বিষয় নিয়েও সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। বাংলাদেশের সার্বিক অগ্রগতিতে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ড্যান ডব্লিউ মজিনা বলেন, এদেশের সাধারণ মানুষ স্পেশাল কোয়ালিটির। তাদের হৃদ্যতা ও আতিথেয়তায় আমি মুগ্ধ হয়েছি। এ ছাড়া দায়িত্বপালনকালে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাবেক বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার কাছ থেকে যে সহযোগিতা পেয়েছি সে বিষয় নিয়েও কথা হয়েছে। চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ায় বাংলাদেশ ছাড়লেও এ দেশকে খুব মিস করবেন বলেও জানান মার্কিন রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, আমি আবার এ দেশে আসবো। সামনে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের সংগীত উৎসবে আমন্ত্রণ পেয়েছি। সেখানে উপস্থিত থাকার চেষ্টা করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*