সংসদ সদস্য হওয়ার পর খেলাতে হেরে গেছেন মাশরাফি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৫ জানুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, শনিবার: ভোটের মাঠে মাশরাফি বিন মর্তুজার সামনে দাঁড়াতেই পারেনি তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বি। একাদশ জাতীয় সংদস নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন তিনি। তবে সংসদ সদস্য হওয়ার পর প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে হেরে গেছেন মাশরাফি। শনিবার বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মাশরাফির রংপুর রাইডার্স মুখোমুখি হয় চিটাগং ভাইকিংসের। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রংপুর। জবাবে ৫ বল আর ৩ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় মুশফিকুর রহিমের চিটাগং। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন আফগান ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ২৫ রান। অল্প পুঁজি নিয়েও মাশরাফির নেতৃত্বে দারুণ লড়াই করেছে রংপুর। মাশরাফি নিজেও নিয়ন্ত্রিত বোলিং করেছেন। ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রান দিয়ে ২ উইকেট দখল করেন তিনি। এছাড়া বেনি হাওয়েল ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে লাভ করেন ১ উইকেট। কিন্তু ভাইকিংসের জয় রুখতে পারেনি রংপুর। শেষ ওভারে তাদের দরকার ছিল মাত্র ২ রান। শফিউল ইসলামের প্রথম বলেই চার মেরে জয় নিশ্চিত করে রবার্ট ফ্রিলিঙ্ক। রংপুরের শুরুটা ছিল বিবর্ণ। দলীয় ৩ রানেই বরার্ট ফ্রিলিঙ্কের বলে শূন্য রানে এলবির ফাঁদে পড়েন ইংলিশ ওপেনার আলেক্স হেলস। এরপর কোনো রান না করে ফিরে যান মোহাম্মদ মিঠুনও। তাকে সরাসরি বোল্ড করেন ফ্রিলিঙ্ক। স্কোরবোর্ডে আর ৭ রান যোগ করে ফিরে যান রাইলি রুশো (৭)। তার উইকেটটি নেন আবু জায়েদ। দলীয় ১৪ রানের মাথায় মেহেদি মারুফকে (১) সানজামুলের ক্যাচ বানিয়ে তৃতীয় সাফল্য পান ফ্রিলিঙ্ক। ২৫ রানে বেনি হাওয়েলকেও হারায় রংপুর। তার উইকেটটি নেন অফস্পিনার নাঈম হাসান। এরপর ফরহাদ রেজাকেও তুলে নেন নাঈম। ৩১ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে রংপুর। এরপর মাঠে নামেন মাশরাফি। কিন্তু দলকে বিপর্যয় থেকে টেনে তুলতে পারেননি অধিনায়ক। মাত্র ২ রানেই খালেদ আহমেদের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন তিনি। ৩৫ রানে সপ্তম উইকেট হারায় রংপুর। তখন তো মনে হচ্ছিল পঞ্চাশ রানও তুলতে পারবে না ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু শেষতক ২০ ওভার ব্যাটিং করে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৯৮ রান তুলতে সক্ষম হয় দলটি। পুরো অবদান রবি বোপারার। অষ্টম উইকেটে সোহাগ গাজীকে নিয়ে ৪৯ রানের জুটি গড়েন এই ইংলিশ অলরাউন্ডার। আবু জায়েদের বলে আউট হওয়ার আগে ৪৭ বলে করেন ৪৪ রান। তার লড়াকু ইনিংসটিতে ছিল তিনটি চার ও দুটি ছক্কার মার। স্পিনিং অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী করেছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১ রান। চিটাগংয়ের পক্ষে ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান দিয়ে ৪ উইকেট দখল করেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার রবার্ট ফ্রিলিঙ্ক। মাত্র ১০ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন অফস্পিনার নাঈম হাসান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: