সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ২৮৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে ৪ উইকেটে জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ে। ৪৮ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের নোঙ্গরে পৌঁছে যায় তারা। বৃহস্পতিবার নিউজিল্যান্ডের নেলসনের স্যাক্সটন ওভাল মাঠে বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় শুরু হয় এই খেলা। তবে জিম্বাবুয়ের জন্য জয়টা এতো সহজ ছিল না। জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালJimbabo হলেও দলীয় ১৬৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। সাজঘরে ফিরেছেন সিকান্দার রাজা ৪৫, হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ১, রেগিস চাকাভা ৩৫, ব্রেন্ডন টেলর ৪৭ ও সলমোন মিরে ৯। এমন পরিস্থিতিতে জিম্বাবুয়ের জয় নিয়ে শঙ্কাই তৈরি হয়েছিল। কিন্তু দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেছেন সেন উইলিয়ামস ও ক্রেইগ আরভিন। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে তাদের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটিংয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার সঙ্গে জয়ের পথও সুগম হয়েছে জিম্বাবুয়ের। ষষ্ঠ জুটিতে জিম্বাবুয়ের দলীয় স্কোরে যুক্ত হয়েছিল ৮৩ রান। ব্যক্তিগত ৪২ রানে আরভিন আউট হলে জুটি ভাঙে। অবশ্য ততক্ষণে দল নিরাপদ অবস্থানে পৌঁছে গেছে। সঙ্গে হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে জিম্বাবুয়ে শিবির। নইলে আমিরাতের কাছে হার এড়ানো কঠিন হয়ে পড়ত তাদের জন্য। শেষ অবধি তা হয়নি জয় পেয়েছে দলটি। ৭৬ রানের অপরাজিত একটি ইনিংস খেলেছেন সেন উইলিয়ামস। তার ইনিংসে ৭টি চার ও ১টি ছয়ের মারের ছিল। এর আগে আমিরাত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ২৮৫ রান। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২৬ ও ৪০ রানে আমিরাত আমজাদ আলি ও আন্দ্রি বেরেঙ্গারকে হারায়। তৃতীয় জুটিতে যুক্ত হয় ৮২ রান। কৃষ্ণচন্দ্র ব্যক্তিগত ৩৪ রান এবং এ আসরের সবচেয়ে বুড়ো খেলোয়াড় খুরমান ৪৫ রানে আউট হন। আমিরাতের পক্ষে সবচেয়ে বেশি রান করেন সাইমন আনওয়ার। তিনি ৫৯ বলে করেন ৬৭ রান। এছাড়া পাতিল ৩২, জাভেদ ২৫, নাভিদ ২৩ রান করেন। অতিরিক্ত আসে ২৬টি রান। আমিরাতের এটি ওয়ানডে ম্যাচে সর্বাধিক রান। জিম্বাবুয়ের উইলিয়ামস ও সলোমন নেন দুটি করে উইকেট। টেন্ডাল চাটারা নেন তিনটি উইকেট। এ আসরে জিম্বাবুয়ের এটি দ্বিতীয় ম্যাচ। তারা প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে ৩৪০ রানের লক্ষ্য তাড়া করেও হারে মাত্র ৬২ রানে। হেমিল্টন মাসাকাদজা করেন ৮০ রান। অপরদিকে ১৯৯৬ সালের পর এবার মিলিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ খেলছে আমিরাত। সূত্র : শীর্ষনিউজডটকম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*