সংকট নিরসনে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান ব্রিটিশ হাইকমিশনারের

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : চলমান সংকট নিরসনে সব রাজনৈতিক পক্ষকে পদক্ষেপ নেওয়ার Britishআহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন। বুধবার বিকেলে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক শেষে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মাধ্যমে এই আহ্বান জানান হাইকমিশনার। তিনি বলেন, আমি আগেও যেমনটি বলেছিলাম এখনো বলছি বাংলাদেশে যে সহিংসতা ও মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা যেভাবে ব্যাহত হচ্ছে তা খুবই দুঃখজনক। তিনি বলেন, আমি সকল রাজনৈতিক পক্ষকে আহ্বান করছি জনগণের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরিয়ে আনার পদক্ষেপ নিতে। এর জন্য সকল রাজনৈতি দলকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এর মাধ্যমে বর্তমান অস্থিরতা নিরসন হবে বলেও মনে করেন ব্রিটিশ সরকারের এই দূত। তিনি বলেন, আমি প্রত্যাশা করি দীর্ঘ মেয়াদে হলেও রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা গড়ে তোলার এ প্রক্রিয়া জোরদার হবে। যা বাংলাদেশের নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে যে বিঘিœ সৃষ্টি হচ্ছে; তার বিলুপ্তি ঘটাবে। একই সঙ্গে সকল রাজনৈতিক বৈধ কর্মকাণ্ড শান্তিপূর্ণভাবে পালন করার পরিবেশ নিশ্চিত হবে। যুক্তরাজ্য সরকারের এই দূত বলেন, আমি ক্রমাগত সবাইকে আহ্বান জানিয়ে আসছি; যেন তারা তাদের কর্মের পরিণতি সম্পর্কে পরিপূর্ণভাবে ভাবেন। এর আগে বুধবার বিকেল ৪ টা ৫৫ মিনিটের দিকে বিএনপি প্রধানের কার্যালয়ে প্রবেশ করেন গিবসন। এরপরপরই ওই বৈঠক শুরু হয় বলে গুলশান কার্যালয়ের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছেন। লাগাতার অবরোধ ডেকে এক মাসের বেশি সময় ধরে ওই কার্যালয়ে রয়েছেন খালেদা জিয়া। বুধবার ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে সেখানেই রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন তিনি। অন্য সময় এই ধরনের বৈঠকে কয়েকজন উপদেষ্টা থাকলেও এই বৈঠকে তাদের কাউকে সঙ্গে রাখেননি খালেদা জিয়া। গত ৩ জানুয়ারি থেকে গুলশানের কার্যালয় অবস্থান করা খালেদার সঙ্গে এটাই কোনো বিদেশি কূটনীতিকের প্রথম সাক্ষাৎ। ফলে তাদের এই বৈঠক নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক কৌতূহল রয়েছে। গত ২৪ জানুয়ারি কোকোর মৃত্যুর পরদিন ব্রিটিশ হাইকমিশনারসহ কয়েকজন কূটনীতিক গুলশানের কার্যালয়ে শোকবইকে স্বাক্ষর করতে এলেও তখন বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়নি। সূত্র : শীর্ষনিউজডটকম আমারদেশ

Leave a Reply

%d bloggers like this: