শ্রমিক লীগের হরতাল বিরোধী সমাবেশ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : জাতীয় শ্রমিক লীগ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে বক্তারা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছেন এবং উদীয়মান রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।05 তখন খালেদা জিয়া বাংলাদেশ ধ্বংস করার খেলায় নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, উন্নয়ন, ধর্ম ও মানবতার শত্র“। সারাদেশ যখন সামনের দিকে এগুচ্ছে তখন তিনি বাংলাদেশকে পেঁছনের দিকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চান। তিনি জঙ্গীবাদের ক্রীড়নক হিসেবে জনগণ ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। রাষ্ট্রদ্রোহীতার দায়ে তার বিচার হবেই। তিনি আরো বলেন, কোন কারণ ছাড়াই নাশকতার মামলার আসামীদের বিচার প্রক্রিয়া তেকে রক্ষায় বৃহত্তর চট্টগ্রামে হরতাল ডাকা হয়েছে। জ্বালাও-পোড়া-খুনের আসামীদের বেগম জিয়া কিছুতেই বাঁচাতে পারবেন না, তিনি নিজেও রক্ষা পাবেন না। জনগণ এখন অনেক সচেতন। জনগণ আতঙ্কগ্রস্ত হলেও যখন জনগণের ধৈর্য্যরে বাঁধ ভেঙ্গে যাবে তখন বেগম জিয়াকে জনরোষানলে পুড়াতে হবে। চট্টগ্রাম মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি বখতিয়ার উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে ও শ্রমিক নেতা আবুল হোসেন আবু’র সঞ্চালনায় কোতোয়ালী চত্বরে বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা কামাল উদ্দিন চৌধুরী, সংবাদপত্র হকার্স লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম, অগ্রণি ব্যাংকের গাজী জসিম উদ্দিন, ওয়াসা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, গাজী সাদেকুর রহমান, আসাদুল হক, মো: শাহীন, বিপণী বিতান কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো: আলমগীর, টিএণ্ডটি সভাপতি আবদুল লতিফ, আবদুল মালেক, সাবের আহমেদ, লবণ শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, ঘাট-গুদাম শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মো: রতন মাঝি, সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালেক, কৃষি ব্যাংকের নজরুল ইসলাম, ইমাম হোসেন, রূপালী ব্যাংক সভাপতি কাজী হাসান মুরাদ, ওয়ার্ড শ্রমিক নেতা শওকত ওসমান, আবদুল মান্নান ফেরদৌস, নুরুল আমিন, মঞ্জুরুল আলম, জাহাঙ্গীর আলম, সঞ্জয় দাশ, রিয়েল দত্ত, মনিরুল হক মুন্না, আবদুল মাবুদ, শামসুদ্দিন, শওকত ওসমান খান প্রমুখ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: