শেষ হলো ল্যাপটপ মেলা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৮ ডিসেম্বর, রবিবার:
শেষ হলো ল্যাপটপ নিয়ে দেশের সবচেয়ে বড় আয়োজন ‘ল্যাপটপ ফেয়ার ২০১৬’। প্রথম দুই দিনের মতো শেষ দিন শনিবার ছিল দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। উৎসবের আমেজে বেচাকেনাও বেশ হয়েছে। ল্যাপটপ কিনে কেউ পেয়েছে মনিটর, আবার কেউ ফ্রিজ, সাইকেলসহ অনেক মেগা পুরষ্কার। এই তিনদিন বিশ্বের নামকরা সব ব্র্যান্ড তাদের ল্যাপটপ নিয়ে পসরা সাজিয়েছিল রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। আজ পর্দা নামলো এ আসরের।

কামরাঙ্গীরচর থেকে আসা হাবিবুর রহমান ঢাকাটাইমসকে জানান, ‘অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছিলাম মেলার জন্য। কিছুটা কম দামে ল্যাপটপ পাওয়া যায়। এছাড়াও প্রতিবছর আমি মেলায় আসি। এবার ল্যাপটপটি কিনে স্ক্যার্চকার্ড ঘষে পুরস্কার পেলাম ফ্রিজ। যা সত্যিই চমৎকার। আমি খুব আনন্দিত।’

এ ধরনের মেলাতে সাধারণত ক্রেতারা আসেন কিছুটা কম দামে ভালো পণ্যটি কেনার জন্য। পাশাপাশি বিভিন্ন ছাড়-উপহারও আকৃষ্ট করে তাদের। এবারের মেলায় বিভিন্ন ব্র্যান্ড ক্রেতাদের হতাশ করেনি। ক্রেতারা পছন্দের ল্যাপটপটির সঙ্গে পেয়েছেন মূল্যছাড়। সঙ্গে মুঠোফোন, সাউন্ডবক্স, টি-শার্ট, সাইকেল, ফ্রিজ, মনিটর, টিভিসহ অসংখ্য পুরস্কার তো ছিলই।

মেলায় সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে মধ্যম মানের ল্যাপটপ। এছাড়া গেইমিং ল্যাপটপেরও ব্যাপক চাহিদা ছিল। বিক্রেতারা জানিয়েছেন, এসব পণ্যের দাম কম হওয়ায় সব বাজেটের ক্রেতাই কিনতে পেরেছেন।

মেলার আয়োজক এক্সপো মেকারের পরিচালনা বিভাগের প্রধান নাহিদ হাসনাইন সিদ্দিকী ঢাকাটাইমসকে জানান, মেলায় দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় ছিলো। অংশগ্রহণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের প্রত্যাশার মতো বেচাকেনা করেছে। সার্বিকভাবে সবার সহযোগিতায় সফলভাবে মেলাটি শেষ করতে পেরেছি। যা সত্যি আনন্দের।’

এক্সপো মেকারের এটি ১৮তম ল্যাপটপ মেলা। এতে একটি মেগা প্যাভিলিয়ন, ছয়টি প্যাভিলিয়ন, ছয়টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ৪৪ স্টলে দেশ-বিদেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করে।

এবারের মেলায় এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনোভো, ওয়ালটন, লাভা, তোশিবা, টুইনমস, গিগাবাইট, ডিলাক্স, এক্সট্রিম, লজিটেক, ডিলিংক, ইসেট অ্যান্টিভাইরাস, আইলাইফ, টোটোলিংক, লিনেক্স ও এডাটার মতো ব্র্যান্ডের পণ্য বিক্রি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*