শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ)’র পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৮ মে: শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ) চট্টগ্রাম মহানগর’র উদ্যোগে গত ৭ মে চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে শুদ্ধ বানান চর্চা প্রতিযোগিতা-২০১৬ এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক razuশামসুদ্দিন শিশিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম. নাছির উদ্দিন। শুবাচ’র নগর সাধারণ সম্পাদক এম. এম. তারিকুল ইসলাম রাজুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন শুবাচ’র প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি লেখক ও গবেষক ড. মোহাম্মদ আমীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন শুবাচ চট্টগ্রাম মহানগরের সদস্য সংগঠক নোমান উল্লাহ বাহার। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাগমনিরাম সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুকুমার দেবনাথ, অধ্যাপক তৈয়বুর রহমান, প্রতিযোগিতা পরিচালনা কমিটির আহবায়ক জহির সিদ্দিকী, লায়ন প্রশান্ত বড়–য়া, সালাহউদ্দিন, নুর উদ্দিন খান সাহেদ, মো. নুরুল আলম, শ্রাবণী বিশ্বাস, ইমরান হোসেন ইমু, মুক্তা নাথ, মহিউদ্দিন মুন্না, মো. রাসেল, মো. মঈনুদ্দিন প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ.জ.ম. নাছির উদ্দিন বলেন, মাতৃভাষা বাংলার শুদ্ধ বানান বিষয়ে ব্যাপক গণসচেতনতা সৃষ্টির বিকল্প নেই। যত্রতত্র ভুল বানানের ছড়াছড়ি। অশুদ্ধ বাংলা বানান আশংকাজনক হারে বেড়ে চলছে। শুদ্ধ বাংলা বানান চর্চা প্রসারিতকরণের মাধ্যমে প্রমিত বাংলা প্রয়োগে আমাদের সতর্ক হওয়া উচিত। মাতৃভাষা মায়ের মত এবং ভাষাপ্রেম দেশেপ্রেমের অবিচ্ছেদ্য অংশ। সুতরাং মাতৃভাষার প্রতি সর্বোচ্চ আন্তরিকতা প্রকাশ করে তাঁর সম্মান, বিশুদ্ধতা অক্ষুন্ন রাখা একজন সুনাগরিকের অন্যতম দায়িত্ব। উদ্বোধক ড. মোহাম্মদ আমীন বলেন, পৃথিবীব্যাপি বাংলা ভাষাভাষিদের মধ্যে সঠিক বাংলা বানানের ক্ষেত্রে জনসচেতনতা ছড়িয়ে দিতে শুবাচ’র উদ্যোগ ও সক্রিয়তা রয়েছে। মাতৃভাষাকে মায়ের মত শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও যতেœ লালন করতে হবে। বর্তমানে সাইনবোর্ড, ব্যানার, লিফলেটসহ যাবতীয় বাংলা লেখায় অসংখ্য ভুল বানান পরিলক্ষিত হয়, যা অনভিপ্রেত। চট্টগ্রাম থেকেই ভাষা আন্দোলনের মত বাংলা শুদ্ধ বানান প্রতিষ্ঠা আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: