‘শিক্ষার্থীরা যেন কৃষিবিমুখ না হয়ে পড়ে’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : নগরায়ন ঘটলেও শিক্ষার্থীরা যেন কৃষিবিমুখ না হয়ে পড়ে সেজন্য পাঠ্যসূচিতে কৃষি শিক্ষাকে গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন Hasina“আমাদের ছেলেমেয়েকে এই শিক্ষা দিতে হবে; ক্ষেতে যেতে হবে, কিভাবে ফসল গড়ে ওঠে জানতে হবে। ছেলেমেয়েরা যেন কৃষি কাজ থেকে বিমুখ না হয়।” “তা নাহলে ধান গাছ থেকে তক্তা হয় কি না, এই প্রশ্নও একদিন আসবে,” শনিবার গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ষোড়শ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে বলেন তিনি। শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তার দিকে ইঙ্গিত করেই পাঠ্যসূচিতে কৃষিকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশে নগরায়নের এই যুগে শিশুরা কৃষির প্রতি আগ্রহ হারালে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্য বাধাগ্রস্ত হবে বলে স্মরণ করিয়ে দেন শেখ হাসিনা। নগরে শিশুদের বেশির ভাগ সময় ঘরে থাকার বিষয়টি তুলে অপরিকল্পিত নগরায়নের সমস্যাও তুলে ধরেন তিনি। “শহরে ফ্ল্যাটের মধ্যে ফার্মের মুরগির মতো বাচ্চারা বড় হচ্ছে। কেউ একটুও জায়গা ছাড়ে না। একটু গাঁথুনি তুলতে পারলেই লাভ। সকলে লাভের দিকটাই দেখে।” নদীর দুই পাড়ে ফলের চাষ করার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এত প্রশস্ত নদী দরকার নেই। আমাদের নাব্যতা দরকার। নদীর দু’পাশে যে আমরা ভূমি উদ্ধার করছি, সেখানে ফল চাষ করতে পারি।” পার্বত্য চট্টগ্রামে কী করে আরও ফল ও সবজী উৎপাদন করা যায়, সে দিকে গবেষকদের নজর দিতেও বলেন তিনি। খাদ্য উৎপাদনের সঙ্গে সঙ্গে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের মাধ্যমে খাদ্য প্রক্রিয়াজাত শিল্প গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “খাদ্যভাবের দেশ নয়; দেখাতে হবে বাংলাদেশও বিশ্বকে খাওয়াতে পারে।” সূত্র : শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*