শরীরের সৌন্দর্যের জন্য মনের প্রশান্তির জন্য যোগব্যায়ামের বিকল্প নেই

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : শরীরের সৌন্দর্যের জন্য মনের প্রশান্তির জন্য যোগব্যায়ামের বিকল্প নেই। যোগব্যায়াম যেই কোন সময়ে করা যায়। তবে অনেকেই যোগব্যায়ামের সঠিক নিয়মাবলী না জানার কারণে অনেক সময় বিপদের সম্মুখীন হচ্ছে। বিপদ থেকে রক্ষার জন্য যোগব্যায়ামের কিছু সঠিক নিয়মাবলী উপস্থাপন করা হল।0000
যোগব্যায়ামের সঠিক পদ্ধতি : যোগব্যায়াম দুটি ভাবে করা যায়। ১. ভুজঙ্গাসন। ২. শলভাসন।
ভুজঙ্গাসন
১. প্রথমে আপনাকে একদম সোজাসুজি ভাবে উপুড় হয়ে শুতে হবে। তারপর পায়ের পাতা দুটো পুরোপুরি সোজা করে রাখতে হবে। পরবর্তীতে হাতের তালু উপরের দিকে গোড়ানো থাকবে।
২. তার পরে উপুড় অবস্থায় হাত দুটো দুই কাঁধের বরাবর নিয়ে তালুর ওপর ভর দিয়ে মাটিতে রাখুন। এমন অবস্থায় কনুই দুটো শরীরের সাথে লাগানো থাকবে।
৩. পরবর্তী সময়ে হাতের উপর ভর দিয়ে একটু উপরে ওঠার চেষ্টা করুণ।
৪. শরীরের স্বাভাবিক অবস্থা থাকবে, পুরো শরীর নিচে মিশে থাকবে, বাকি অংশটুকু উপর হয়ে তাকবে। কিন্তু চাপটা শুধু বুক ও কোমরের ওপর থাকবে এবং ধিরে ধিরে নিঃশ্বাস নেওয়ার চেষ্টা করুন।1234
৫. শরীরের মেরুদণ্ডটি ধনুকের মতো বাঁকানো থাকবে।
৬. এই অবস্থায় প্রয় ৩০ সেকেন্ড থাকতে হবে।
ফলাফলঃ
১. উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের জন্য উপকারী।
২. পিঠ ও মেরুদণ্ডের ব্যথা উপশমেও সহায়ক।
৩. মেয়েদের কোমর ও পেটের ব্যথার জন্য উপকারী।
শলভাসনঃ
১. প্রথমত উপর হয় শুতে হবে।
২. সোয়ার পর দুই হাত সোজা করে পেট আর দুই ঊরুর নিচে রাখুন।
৩. একদম সোজাসুজি অবস্থায় হাতের তালু থাকবে।
৪. পরবর্তীতে দুই পা সোজা অবস্থায় রাখুন।
৫. ঊরু ও নিতম্বের পেশি শক্ত করে দুই হাতের তালুর ওপর অল্প ভর দিয়ে পা একটু ফাঁকা করে যতটুকু সম্ভব ধীরে ধীরে দম নিতে নিতে ওপরে তুলুন।5433
৬. এই আসনটি করার সময় যাঁরা দুই পা একসঙ্গে তুলতে পারবেন না, তাঁরা এক পা তুলবেন। প্রথমে ডান পা তুলুন আগের মতো এবং ডান পা নামিয়ে বাঁ পায়ে একইভাবে করুন। এভাবে এক পা তুলে শলভাসন করতে পারেন।
ফলাফলঃ
১. অতিরিক্ত মেদ কমিয়ে ফেলবে।
২. যদি মেরুদণ্ড ও কোমরের ব্যথা থাকে, তা সেরে যাবে।
৩. হৃদযন্ত্র ও হজমশক্তি বৃদ্ধি পাবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: