রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮১তম জন্মদিন পালিত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৯ জানুয়ারী ২০১৭, বৃহস্পতিবার: রাজনৈতিক দলগুলোকে নিজেদের মধ্যে সংলাপে আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের আহ্বানে উৎফুল্ল বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আলোচনা ও সংলাপ বসতে বিএনপির কথাই তুল ধরেছেন রাষ্ট্রপতি।
বৃহস্পতিবার দলের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮১তম জন্মদিন উপলক্ষে জিয়ার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ফখরুল।
নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনার অংশ হিসেবে মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি কথা বলেন জমিয়তে ওলামায়ে ইসলাম ও খেলাফতে মজলিসের সঙ্গে। এ সময় তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রের জন্য সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের বিকল্প নেই। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সরকারের পাশাপাশি দেশের সব রাজনৈতিক দলগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে এবং সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে।’
দশম সংসদ নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ফোন করে সংলাপে বসার প্রস্তাব দেন। বিএনপি নেত্রী তখন এ নিয়ে নানা শর্তের কথা বললেও নির্বাচনের পর বিএনপিই এখন সংলাপে বসতে সরকারের প্রতি বারবার আহ্বান জানাচ্ছে।
এই অবস্থায় রাষ্ট্রপতির এই আহ্বানকে বিএনপি দেখছে তাদের অবস্থানের পক্ষে রাষ্ট্রপ্রধানের সমর্থন হিসেবেই। সংলাপে বসতে রাষ্ট্রপতি আহ্বান জানানোয় তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশের রাজনৈতিক সমস্যা সমাধানে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সংলাপ-আলোচনা ছাড়া গণতন্ত্র কখনোই ফলপ্রসু হবে না। আমরা অনেক আগেই সংলাপ-আলোচনার কথা বলে আসছি। রাষ্ট্রপতি আমাদের কথাই বলেছেন।’

বিএনপি ইতিবাচক রাজনীতি করে এমন মন্তব্য করে দলের মহাসচিব বলেন, ‘নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনার কথা বেগম খালেদা জিয়াই প্রথম প্রস্তাব করেছেন। রাষ্ট্রপতি সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলেছেন। এখন আমরা আশা করছি রাষ্ট্রপতি নিরপেক্ষ সার্চ কমিটি এবং সবার গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন। অন্যথায় জনগণ তা মানবে না।’
দেশে গণতন্ত্র নেই দাবি করে এই অধিকার ফিরিয়ে আনার কথাও বলেন ফখরুল। বলেন, ‘জিয়াউর রহমানের দেখানো পথে দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে দেশের জনগণের রাজনৈতিক অধিকার, ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেব।’
বিএনপি নেতা বলেন, বাংলাদেশের জনগণ ১৯৭৫ সালের পর একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। কিন্তু আবারও ভিন্নপন্থায় নতুনভাবে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে চায় আওয়ামী লীগ। মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার, কথা বলার অধিকার, সভা-সমাবেশ করার অধিকার হরণ করে বাকশাল কায়েম করতে চায়।
জিয়াউর রহমানের জন্মদিনের তাৎপর্য উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, ‘জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক-প্রবক্তা ও আধুনিক বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা। আজ তার ৮১ তম জন্মবাষির্কী। এই মহান নেতা ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণা দিয়ে সমগ্র জাতিকে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে অনুপ্রেরণা দিয়েছিলেন। পরবর্তীকালে দেশের প্রতিটি ক্রান্তিলগ্নে যিনি নেতৃত্ব দিয়ে অন্ধকার থেকে দেশকে আলোতে নিয়ে এসেছিলেন।’ জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকীকে তার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর এই আয়োজনে ছিলেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াও। তবে তিনি বরাবরের মতোই এই দিনে সেখানে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে কিছু বলেননি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: