রামগড়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের জায়গা বেদখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন

এমদাদ খান, রামগড়, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার: খাগড়াছড়ির জেলার রামগড় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের রেকর্ডীয় জায়গা বেদখলের প্রতিবাদে ও অবৈধ দখলদারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) রামগড় উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা এবং তাদের সন্তানরা সকাল ১০ টায় রামগড় বাজারে খাগড়াছড়ি ফেনী মেইন রাস্তার পাশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।
মুক্তিযোদ্ধারা অভিযোগ করে বলেন, রামগড় পৌরসভার কমপাড়া এলাকায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নামে ৯.১৮ শতাংশ জায়গা রয়েছে। সরকার ২০১৪ সালে জায়গাটি বন্দোবস্ত দেয়। এ জায়গায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়। গত মাসে দুই কোটি ১৮ লক্ষ টাকার কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ প্রকল্পের টেন্ডার হয়। প্রকল্প কাজের ঠিকাদার কাজ শুরু করতে গেলে জনৈক রুহুল আমিন এতে বাধা দেয়।
তারা আরও অভিযোগ করেন, ওই ব্যক্তি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের রেকর্ডীয় জায়গার ওপর একটি কাচা ঘর ও গাছ লাগিয়ে বেদখল করেছেন। এ অবস্থায় অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদ করে অবিলম্বে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজ শুরু করার কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান মুক্তিযোদ্ধারা। প্রশাসন এ ব্যাপারে তরিৎ পদক্ষেপ না নিলে আগামীতে আরও কঠোর কর্মসূচি নেয়া হবে বলেও তারা জানান।
মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মো. মোস্তফা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির সভাপতি মনছুর আহম্মদ, খাগড়াছড়ি জেলা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমান্ডের সভাপতি মো. হারুণ প্রমুখ বক্তব্য দেন।
মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মফিজুর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কালাম, রামগড় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি খাজা নাজিম উদ্দিন,ও সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরি প্রমুখ।
মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জায়গা থেকে অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদের আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে জানান রামগড় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল মামুন মিয়া।

Leave a Reply

%d bloggers like this: