রাবি কর্মচারী আরিফুল ইসলামের বিরুদ্ধে ভর্তি পরীক্ষায় প্রতারণার অভিযোগ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৭ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার ‘আই’1 ইউনিটের (চারুকলা অনুষদ) ভর্তি পরীক্ষার সময় তাকে আটক করা হয়। অভিযুক্ত আরিফুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অফিস সহায়ক। বুধবার রাত পৌনে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান।
এসময় রাবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান বলেন, ‘আরিফুল ইসলামের বিরুদ্ধে আমাদের কাছে সম্ভাব্য জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে। সে একধরনের প্রলোভন দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু আমরা প্রাথমিক অবস্থায় ফোনে এসএমএস চালাচালির সময়ই তাকে বিভাগের শিক্ষকদের সহযোগিতায় ধরে ফেলি।’
‘এসময় আমরা মো. শাহীন নামে এক শিক্ষার্থীকেও আটক করি। নওগাঁর পোরশার ওই শিক্ষার্থী জালিয়াতির শিকার হচ্ছিল। কিন্তু সে তখন পর্যন্ত কোনো টাকা-পয়সা দেয়নি। তাদের কাছ থেকে আমরা দুইটি মোবাইল জব্দ করেছি। শিক্ষার্থীর মোবাইলে আমরা কয়েকটি ওয়েমার শিটের ছবি দেখতে পাই।’
‘আমাদের ধারণা, আরিফ হয়তো মূল জালিয়াতি চক্র থেকে অনেক দূরে অবস্থান করছে। আর সে যেহেতু বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী, তাই বিশ্ববিদ্যালয় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার অধিকার রাখে। আরিফের কাছ থেকে স্বীকারোক্তি নিয়ে প্রাথমিকভাবে আমরা তাকে ছেড়ে দিয়েছি।’
‘আরিফের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিভাগ থেকে প্রক্টর বরাবর চিঠি দেয়া হয়েছে। প্রক্টর সেই চিঠি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর পাঠিয়েছে। রেজিস্ট্রার দপ্তর তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে। আর বাইরের যদি কোনো যোগসূত্র থাকে তাহলে তা পুলিশ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে’ বলেও যোগ করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান।
একটি বিশেষ সূত্রে জানা যায়, ‘রাজশাহীর কাটাখালির মজনুর সঙ্গে আরিফের একটা যোগাযোগ ছিল। মজনু ভর্তিচ্ছুই শিক্ষার্থীদের যোগাড় করত। আর আরিফ প্রশ্নপত্র বাইরে এনে দেবে, এরকম নানা ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে শিক্ষার্থীকে বোঝাতে সক্ষম হতো যে, প্রশ্নপত্র শিক্ষার্থীকে দিতে পারবে। এভাবে শিক্ষার্থীর কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে ফুটে পড়ত এই চক্র। এভাবে টাকা নিতে পারলে আরিফ প্রতি শিক্ষার্থীর জন্য পেত দুই হাজার টাকা। সে গত দুই বছর ধরে এই চক্রের সঙ্গে জড়িত ছিল।’

Leave a Reply

%d bloggers like this: