রাবিতে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশে গড়িমসি, শঙ্কায় শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৭ নভেম্বর: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও এখনো ফলাফল প্রকাশ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।ru
ফলাফল প্রকাশ নিয়ে প্রশাসনের এমন গড়িমসির কারণে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অনেকে শঙ্কা প্রকাশ করছে। তবে ফলাফল প্রকাশ করতে প্রশাসন সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন।
এদিকে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতে ছাত্রলীগের সরাসরি সম্পৃক্ততা থাকা এবং প্রশাসন কর্তৃক ‘ওএমআর’ মূল্যায়ন মেশিন নষ্ট হওয়ার কথা স্বীকার করায় সর্বমহলে সন্দেহ ও সংশয় দেখা দিয়েছে।
জানা যায়, গত ৯ তারিখ সোমবার সকাল ৯ টায় ‘এ’ ইউনিটের বিজোড় রোলধারীদের পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হয়ে ১২ তারিখ বিকেল পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষা চলে। এবার ভর্তি পরীক্ষায় ৮ টি ইউনিটে বিশেষ কোটাসহ মোট ৪ হাজার ৭২২টি আসনের বিপরীতে এক লাখ ৬০ হাজার ৬৪২টি আবেদন জমা পড়ে। দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শেষ হওয়ার একদিন অথবা সেই রাত্রেই ফলাফল প্রকাশ করা হয়ে থাকে। কিন্তু রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার এই চিত্র ব্যতিক্রম। গত ৯ তারিখে দেশের বৃহত্তম এই বিদ্যাপীঠে ভর্তি যুদ্ধ শুরু হয়। কিন্তু পরীক্ষার শেষ হওয়ার ৭ দিন অবিবাহিত হলেও এখনো ফলাফল প্রকাশ হয়নি। এ নিয়ে ক্যাম্পাসে সচেতন মহলে সর্বত্রই সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
ফলাফল দেরী হওয়ার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষক বলেন, ‘ওয়েমার্ক মেশিন আগে থেকেই ঠিক রাখা দরকার ছিল। প্রতিবারের তুলনায় এবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে পরীক্ষার ফরম পূরণ করা হলেও কেন ফলাফল প্রকাশ নিয়ে এতো জটিলতা এ নিয়ে নানা সংশয় দেখা দিয়েছে বিভিন্ন মহলে।
এ প্রতিবেদন লেখার আগ পর্যন্ত প্রতিবেদকের কাছে অনেক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক ফোন করে জানতে চেয়েছে রেজাল্ট কবে বা কখন প্রকাশ করা হবে। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান সুমনসহ বেশ কিছু নেতার সম্পৃক্ততার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
ঠাকুরগাঁও থেকে পরীক্ষা দিতে আসা লাকী আক্তার নামে এক ফল প্রত্যাশী সংশয় প্রকাশ করে বলেন, আমি ২ টি ইউনিটের পরীক্ষা দিয়েছি। পরীক্ষার প্রায় এক সপ্তাহ হয়ে গেল কিন্তু এখনো রেজাল্ট হচ্ছে না ফলে আমি অনেকটাই হতাশ হয়ে পড়েছি। যদি আমার এখানে চান্স না হয় তাহলে আমাকে আবার সেই মনোবল নিয়ে প্রস্তুতি নিতে হবে।’
টাঙ্গাইল থেকে ‘বি’ ইউনিটে এক পরীক্ষার্থী বলেন, যেখানে আধুনিকতার ছোয়া সব জায়গায়। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এমন জায়গায় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কেন এমন গড়িমসি করছে সেটা আমার বুঝে আসে না। আমি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে পড়ার জন্য সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কিন্তু ফলাফল প্রকাশ করতে দেরী হওয়ায় চান্সের কোন আশা পাচ্ছি না।
দিনাজপুরের এক অভিভাবক বলেন, পরীক্ষার এক সপ্তাহ পার হলেও এখনো কেন রেজাল্ট হচ্ছে না? অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে ১/২ দিন পরে রেজাল্ট হয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সপ্তাহেও হয় না। এটি একটি অপ্রত্যাশিত ঘটনা। যা কখনো কাম্য নয়।
সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর নীলুফার সুলতানা বলেন, পরীক্ষার সুষ্ঠু ফলাফলের জন্যই মূলত দেরী হচ্ছে। তবে কবে নাগাদ সময় লাগবে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আগামীকাল না হলে তার পরের দিন হবে বলে তিনি জানান।
ফলাফল দেরী হওয়ার বিষয়ে উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিন বলেন, ওয়েমার মেশিনে সমস্যা হওয়ার কারণে ফলাফল দেরী হচ্ছে। তবে আশা করছি দ্রুতই ফলাফল প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি। সূত্র: শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

%d bloggers like this: