রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনার লক্ষ্যেই কল্যাণ পার্টি কাজ করছে: মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ইংরেজী, মঙ্গলবার: চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেছেন, রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনার লক্ষ্যেই কল্যাণ পার্টি কাজ করছে। রাজনীতিতে শিক্ষিত মেধাবী লোকদের অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান কিভাবে করা যায় সেই কাজ করছে কল্যাণ পার্টি। রাজনীতিতে কালো টাকার মালিকদের প্রাধান্য নিয়ন্ত্রণ করার উদ্যোগ নিতে হবে। রাজনীতিতে সৎ ও চরিত্রবান মানুষকে উৎসাহিত করার চেষ্টা করে যেতে হবে। আজ ৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুর ১১ টায় বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পার্টি কার্যালয়ে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন বাছাই’র পরও বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। মামলাও চলছে। অথচ নির্বাচন কমিশন (ইসি) নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। এতে জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাধাগ্রস্ত হবে। কল্যাণ পার্টির সভাপতি আরও বলেন, ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। জনগণের দ্বারা নির্বাচিত প্রতিনিধির মাধ্যমে সরকার গঠন করতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন জনগণের সৎ সাহস ও সচেতনতা। ইলিয়াস আরো বলেন, এখন জনগণের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জাতি, ধর্ম, দলমত নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নুরুল আলমের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কল্যাণ পার্টির উত্তর জেলা সভাপতি দিদারুল আলম সুমন, বাংলাদেশ ন্যাপের মহানগর সভাপতি ওসমান গণি সিকদার, এনপিপির চট্টগ্রাম নগর সভাপতি আনোয়ার সাদেক, চট্টগ্রাম মহানগর মুসলিম লীগ’র আহবায়ক কাজী নাজমুল হাসান সেলিম, বাংলাদেশ ন্যাপের মহানগর সহ-সভাপতি মোজাফ্ফর, সাধারণ সম্পাদক ডা. আবদুস শুক্কুর, চট্টগ্রাম মহানগর এলডিপির সাংগঠনিক সম্পাদক দোস্ত মোহাম্মদ, প্রচার সম্পাদক মো. নুরুল আজগর চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর যুব বিষয়ক সম্পাদক বি. এম ছায়েদুল হক, চট্টগ্রাম কল্যাণ পার্টির যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইরফানুল হায়দার, মোহাম্মদ ইলিয়াছ সিকদার, কল্যাণ পার্টির কোতোয়ালী সভাপতি জাহেদ আলী, বায়েজিদ থানা সভাপতি মো. মুসলিম সিকদার, মহানগর সদস্য সাদ্দাম হোসেন সায়মান প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াছ আরো বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে আইনের সঠিক প্রয়োগ না হলে সমান সুযোগের পরিবেশ নিশ্চিত হবে না।আইন ঠিক ভাবে না চললে সেটি আইন নয়, আইনের অপলাপ মাত্র। তিনি বলেন, আইন প্রয়োগ ঠিকভাবে না হলে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে। আর প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন করে কলঙ্কের বোঝা বইতে হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: