রাঙামাটিতে ভূমিধ্বস দুর্গতদের পাশে রবি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৭ জুন ২০১৭, শনিবার: রাঙামাটিতে ভূমিধ্বসে দুর্গতদের মধ্যে বিতরণের জন্য গত জুন ১৬, ২০১৭ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর হাতে ত্রাণ সামগ্রী হস্তান্তর করেছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি।
চট্টগামের আগ্রাবাদে অবস্থিত রবি সেবাকেন্দ্রে রাঙামাটি সেনানিবাসের ক্যাপ্টেন হাবিবুর রহমান চৌধুরীর হাতে ত্রাণ সামগ্রীগুলো তুলে দেন অপারেটরটির ইন্টার্ন ক্লাস্টারের ক্লাস্টার ডিরেক্টর নজির আহমেদ।
প্রতিটি প্যাকে রয়েছে মুড়ি, আখের গুড়, চাল, মসুরের ডাল, সয়াবিন তেল, টোস্ট বিস্কুট, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যবলেট, স্যালাইন, মোমবাতি ও ম্যাচ। ৭৫০টি পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রীগুলো বিতরণ করা হবে।
কর্পোরেট দায়বদ্ধতার আওতায় রবি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার উপর গুরুত্ব দিয়ে থাকে। ২০১৫ সালে বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে মোবাইল ফোন অপারেটরদের বৈশ্বিক সংগঠন জিএসএমএ চালুকৃত হিউম্যানিটেরিয়ান কানেক্টিভিটি চার্টারে ইতোমধ্যে সমর্থন জানিয়েছে রবি।
রবিই বাংলাদেশের একমাত্র মোবাইল ফোন অপারেটর যারা এই সনদের সাথে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ভূমিধ্বসের মতো এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগে দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াতে রবি সবসময়ই আগ্রহী।
রবি সম্পর্কে:
রবি আজিয়াটা লিমিটেড মালয়েশিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ, ভারতের ভারতী এয়ারটেল লিমিটেড এবং জাপানের এনটিটি  ডকোমো ইন কর্পোরেশনের একটি যৌথ উদ্যোগ। ভারতী’র বাংলাদেশে পরিচালিত কোম্পানি‘ এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেড’র সাথে একীভূত হয়ে ২০১৬ সালের নভেম্বর থেকে একীভূত কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে ‘রবি আজিয়াটা লিমিটেড’ যার মধ্যে আজিয়াটার সিংহভাগ-৬৮ দশমিক ৭ শতাংশ, ভারতী এয়ারটেলের ২৫ শতাংশ ও এনটিটি ডকোমোর ৬ দশমিক ৩ শতাংশ মালিকানা রয়েছে। ৩ কোটি ৬২ লাখ সক্রিয় গ্রাহক নিয়ে একীভূত কোম্পানিটি এখন বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর। ১২ হাজারের বেশি অন-এয়ার সাইটের মধ্যে ৭ হাজার ৯শ’টি ৩.৫জি নেটওয়ার্ক নিয়ে দেশের প্রায় ৯৯% জনসংখ্যা রবি নেটওয়ার্কের অন্তর্ভূক্ত। দেশের প্রথম অপারেটর হিসেবে রবি জিপিআরএস ও ৩.৫জি সেবা চালু করেছে। অপারেটরটি ডিজিটাল সেবা চালুর দিক থেকে অনেক ক্ষেত্রে পথিকৃতের ভূমিকা পালন এবং গ্রামে ও উপশহরে সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য মোবাইল আর্থিক সেবা চালু করতে ব্যাপক বিনিয়োগ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*