যুক্তরাষ্ট্রে চিত্রনাট্য রচিয়তা কেটি রিচকে বরখাস্ত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৪ জানুয়ারী ২০১৭, মঙ্গলবার: যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ মাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, দেশটির অন্যতম কমেডি লেখক ও জনপ্রিয় টিভি শো ‘সেটারডে নাইট লাইভ’এর চিত্রনাট্য রচিয়তা কেটি রিচকে অনুষ্ঠান থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। খবর বিবিসির। শুক্রবার দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার তৃতীয় স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের সন্তান ব্যারন ট্রাম্পকে ‘বিদ্রুপ’ করে টুইট করায় তার বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
‘সেটারডে নাইট লাইভ’ বা এসএনএল’র নির্ভরযোগ্য সূত্র এ খবরটি নিশ্চিত করেছে। তবে অনুষ্ঠানটির সম্প্রচারকারী এনবিসি টেলিভিশন এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি। শুক্রবার এক টুইট বার্তায় কেটি রিচ বলেছিন, ‘ব্যারন হয়তো যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম হোম-স্কুল শ্যুটার হবেন’।
পরে অবশ্য সমালোচনার জেরে তিনি টুইটটি তার অ্যাকাউন্ট থেকে মুছে ফেলেন এবং সোমবার আরেক টুইট বার্তায় ব্যারনকে নিয়ে করা টুইটের জন্য ক্ষমাও প্রার্থনা করেন মিস রিচ। কেটির টুইটের পর ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।
মিস রিচের এ টুইটের প্রতিক্রিয়া হিসেবে দেয়া একটি পোস্ট প্রায় ত্রিশ লাখের মতো শেয়ারও হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও হিলারির একমাত্র সন্তান চেলসি ক্লিনটন ব্যারনকে সমর্থন করে ওই টুইট করেন।
ওই পোস্টে বলা হয়, ‘কোনো শিশুর বিষয়ে এভাবে কথা বলা উচিত নয়ৃ সে একজন শিশু এবং তাকে স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ দেয়ার দরকার, সে সম্মানটুকু দেয়া দরকার।’ চেলসি তার টুইটে আরও বলেছেন, ব্যারন ট্রাম্প অন্যান্য শিশুর মতোই বেড়ে ওঠার অধিকার রাখে। আমাদের সকল শিশুর অধিকার রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে। তবে টুইট বার্তায় তিনি নতুন প্রেসিডেন্টের নীতিমালাকে শিশুদের আঘাত করার মতো বলে অভিযোগ তুলে এর বিরোধিতাও করেন। এখানে উল্লেখ্য ‘সেটারডে নাইট লাইভ’ এর শো এর জনপ্রিয়তা সাম্প্রতিক সময়ে অনেক বেড়ে গিয়েছিল, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে প্যারোডিও করা হচ্ছিল এ অনুষ্ঠানে। ২০শ জানুয়ারি দায়িত্ব গ্রহণের পর ডোনাল্ড ট্রাম্প এ অনুষ্ঠানকে ‘হাস্যরসাত্মক নয়’ বরং ‘উদ্ভট’ বলে বর্ণনা করেছেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: