ময়মনসিংহের কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৮ মে ২০১৭, সোমবার: ময়মনসিংহের কবি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন ওই শিক্ষকেরই এক ছাত্রী। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ত্রিশাল থানায় একটি মামলা করেছেন।
ওই ছাত্রী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। এছাড়া অভিযুক্ত শিক্ষক একই বিভাগের প্রভাষক। তার নাম মিনহাজ উদ্দিন।
জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর শিক্ষক মিনহাজ উদ্দিন ওই ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এরপর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে বেশ কয়েকবার শারীরিক সম্পর্কে জড়ান। কিন্তু এখন বিয়ের জন্য চাপ দিলে শিক্ষক মিনহাজ তাকে বিয়ে করবেন না বলে জানান।
এ ঘটনায় গত ২ মে প্রভাষক মো. মিনহাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে ওই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং উপাচার্যের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেন ওই ছাত্রী। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদেরও বিষয়টি অবহিত করেন তিনি। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।
কমিটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শামসুর রহমানকে সভাপতি ও সিন্ডিকেট সদস্য ড. মৃণাল ভট্টাচার্য, প্রক্টর জাহিদুল কবীর ও জ্যেষ্ঠ মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. মমতাজ বেগমকে সদস্য করা হয়।
এরপর গত ৪ মে বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়িতে মামলা করতে গেলে ওই ছাত্রীকে ত্রিশাল থানায় মামলা করার পরামর্শ দেয়া হয়। পরে সেদিনই ওই ছাত্রী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ত্রিশাল থানায় মামলা করেন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, ‘আমরা শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীর অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তসাপেক্ষে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
এদিকে মামলার পর গতকাল অভিযুক্ত শিক্ষককে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন গ্রেপ্তার করেছে বলে গুঞ্জন উঠেছে। তবে ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তাকে গ্রেপ্তারের কোনো তথ্য আমার জানা নেই। ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতেও পারে। বিকালের দিকে আমি বিষয়টি নিয়ে বলতে পারবো।

Leave a Reply

%d bloggers like this: