মোরগের কন্ঠে ‘আল্লাহ! আল্লাহ গো! বলে বারবার ডাক

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা, ৩০ জানুয়ারি ২০১৭, সোমবার: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে কাবাব তৈরীর করার জন্য মোরগ জবাই করতে গেলে জবাই করার প্রস্তুতি নেয়া মাত্রই মোরগটি কমপক্ষ্যে অর্ধশত বার আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! বলে ডাকতে শুরু করল। এরপর গৃহকর্তা যুগান্তরের তাহিরপুরের ষ্টাফ রিপোর্টার ও সিএনবাংলাদেশ, সুনামগঞ্জ প্রতিদিনের সুনামগঞ্জের ষ্টাফ রিপোর্টার হাবিব সরোয়ার আজাদ রবিবার রাতে মোরগটিকে জবাই করা থেকে বিরত রাখেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মোরগটিকে এক নজর দেখার জন্য আশে পাশের এলাকার লোকজন বাদাঘাটের কলেজ রোডের বাসায় ভড়ি করতে থাকেন রাতভর। জানা গেছে, সাংবাদিকের শিশু পুত্র শিহাব সরোয়ার শিপু কাবাব আর রুটি খাবার আবদার পুরণ করতে গিয়ে বাসায় একটি পোলট্রি মোরগ আর একটি দেশী স্থনীয় জাতের মোরগের ব্যবস্থা করা হয়। যথারিতি মোরগ দুটি জবাই করার জন্য ডেকে আনা হল ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ী মানিক ও শাহীনকে। সন্ধা ৭টার দিকে প্রথমে পোলট্রি মোরগটি জবাই করা হল্ কোন শব্দও করেনি।’ এরপর স্থানীয় জাতের মোরগটি জবাই করতে নিয়ে যাওয়া হলে মোরগটি অর্ধশত বার আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! আল্লাহ্গো! বলে ডাকতে শুরু করল।’ মোরগটি জবাই করার প্রস্তুতি কালে সাংবাদিক পতœী, মা- স্ত্রী , সন্তান শিপু শিশু কন্যাদ্বয় আদ্রিতা পাশে থাকা সুমন সহ সকলেই মোরগের মুখে আল্লাহর ডাক শুনলেন। পরবর্তীতে স্থানীয় আলেম সমাজের পরামর্শক্রমে পরবর্তীতে মোরগটি জবাই না করে মোরগটি লালল পালনের ব্যবস্থা নেয়া হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: