মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল তাঁর সকল কাজে নৈতিক ও আদর্শিক ভিত্তি: বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১২ মে ২০১৭, শুক্রবার: বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম জেলা ইউনিট কমান্ড এর পক্ষ থেকে বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিনকে তাঁর কার্যালয়ে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। মো: সামসুল আরেফিন তাঁর কার্যকালে চট্টগ্রাম জেলার মানুষকে অত্যন্ত আপনজনে পরিণত করেছিলেন। তার সততা, কর্তব্য নিষ্ঠা ও আন্তরিকতায় চট্টগ্রামবাসী তাঁকে অনেকদিন স্মরণ করবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল তাঁর সকল কাজে নৈতিক ও আদর্শিক ভিত্তি। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাবোধ ও তাদের সকল প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিনের উদারতা ও সহায়তা আমাদেরকে কৃতজ্ঞতার পাশে আবদ্ধ করেছে। জনাব সামসুল আরেফিন এর উদার্য ও মহানুভবতা পদমর্যাদাকে ছাপিয়ে একজন বড় মাপের মানবিকতাবোধ সম্পন্ন মানুষে পরিণত করেছে বলে মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ তাঁর বিদায়ী সভায় অভিমত ব্যক্ত করেন। প্রতিক্রিয়াশীল ধর্মান্ধ ও মৌলবাদী গোষ্ঠী জঙ্গি তৎপরতা দমনে বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিনের সাহসী নেতৃত্ব মুক্তিযোদ্ধারা সবসময় স্মরণ রাখবেন। চট্টগ্রামে ভেজাল ও মাদক বিরোধী কর্মতৎপরতায় জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন অনন্য অবদান রেখেছেন। চট্টগ্রামের উন্নয়নে বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন সর্বাত্মক কর্মপ্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছিলেন। একজন বিনয়ী জেলা প্রশাসক হিসেবে চট্টগ্রামের মানুষ গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করবে। জেলা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার এ.কে.এম সরোয়ার কামাল, অর্থ কমান্ডার আবদুর রাজ্জাক দপ্তর কমান্ডার এ.কে.এম. আলাউদ্দিন, তথ্য ও পাঠাগার কমান্ডার বোরহান উদ্দিন, সদস্য একরামুল হক, সেকান্দর আলম চৌধুরী, বাবুল মজুমদারসহ সাতকানিয়া জেলা কমান্ডার আবু তাহের, সাতকানিয়া যুদ্ধকালীন কমান্ডার তপন দাশ, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ ডাঃ রতন কুমার দাশ, যুদ্ধকালীন কমান্ডার উদয়ন নাথ, মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা দেবপ্রসাদ গোলদারসহ বিপুল সংখ্যক মুক্তিযোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন। সভায় জেলা কমান্ডার মো: সাহাব উদ্দিনের দ্রুত আরোগ্য লাভে মুক্তিযোদ্ধা এবং জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে দোয়া কামনা করা হয়। বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিনকে সম্মাননা স্মারক ও ফুলের তোড়া দিয়ে বিদায় জানানো হয় এবং দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করা হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: