মিশরের শীর্ষ এক কৌঁসুলিকে হত্যার দায়ে ২৮ জনকে মৃত্যুদণ্ড

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২২ জুলাই ২০১৭, শনিবার: মিশরের শীর্ষ এক কৌঁসুলিকে হত্যার দায়ে ২৮ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে কায়রোর একটি অপরাধ আদালত। দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের পর শনিবার আদালত এই রায় দিল। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত আরো ১৫ জনের প্রত্যেককে ২৫ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
২০১৫ সালে রাজধানী কায়রোয় সরকারি কৌঁসুলি হিশাম বারাকাতের গাড়িবহরে বোমা হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছিল। ওই হত্যাকাণ্ডের জন্য মুসলিম ব্রাদারহুড ও ফিলিস্তিনের গাজাভিত্তিক রাজনৈতিক গোষ্ঠী হামাসকে দায়ী করেছিল মিশর। উভয় গোষ্ঠীই এই হত্যাকাণ্ডে তাদের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে।
জুনে দোষীদের মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের সুপারিশ করে দেশটির শীর্ষ ধর্মীয় নেতা গ্র্যান্ড মুফতির কাছে আর্জি পাঠায় আদালত। গ্র্যান্ড মুফতি ওই সুপারিশ অনুমোদন বা প্রত্যাখ্যান করার অধিকার রাখেন। আদালত মৃত্যুদণ্ড দেয়ার ক্ষেত্রে মুফতির পরামর্শ নিয়ে থাকে, তবে তার সিদ্ধান্ত মানার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। শনিবার আদালতের শুনানিতে মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করে রায় দেয়া হয়, তবে দণ্ডিতরা এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।
আসামি পক্ষের আইনজীবী আহমদ সাদ বলেছেন, ‘আজকের এই রায় অত্যন্ত দুঃখজনক।হিশাম বারাকাতকে হত্যার ঘটনায় যাদের কোনো ভূমিকা ছিল না তাদেরও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।ওই ঘটনায় তাদের কোনো সংশ্লিষ্টতাই ছিল না।’

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: