মারা গেছেন বগুড়ায় গুলিবিদ্ধ ইউপি চেয়ারম্যান

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৯ জুলাই: গাবতলী উপজেলার সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা তারাজুল ইসলাম মারা গেছেন। আজ শনিবার ভোর রাতে নিজ বাড়ীর শয়ন কক্ষে গুলিবিদ্ধ হন। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল তিনটার দিকে তিনি মারা যান।bogra tarajul
স্থানীয় সূত্র জানায়, ইউপি চেয়ারম্যান তারাজুল ইসলাম গাবতলী উপজেলার আটবাড়িয়ায় তার গ্রামের বাড়ীতে ঘুমিয়ে ছিলেন। আজ শনিবার ভোর রাত আনুমানিক ৩টার দিকে অজ্ঞাতনামা দূর্বত্তরা তার ঘরের জানালায় গিয়ে চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলার জন্য নক করে। এসময় চেয়ারম্যানের স্ত্রী জানালা খুলে দিলে দুর্বৃত্তরা তার সাথে কথা বলতে চায়। এসময় তারাজুল বিছানা থেকে মাথা উচু করার সঙ্গে সঙ্গে দুর্বৃত্তরা গুলি ছুঁড়লে তার মাথায় গুলিবিদ্ধ হন। পরে দ্রুত তাকে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর সেখান থেকে সিরাজগঞ্জ খাজা এনায়েত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা অপারেশন করে তার মাথা থেকে গুলি বের করতে ব্যর্থ হন। এরপর লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় তাকে। বিকাল তিনটার দিকে লাইফ সাপোর্ট খুলে নিলে তার মৃত্যু নিশ্চিত হয়।
উল্লেখ্য, ইউপি চেয়ারম্যান তারাজুল ইসলাম বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ছিলেন। বর্তমানে তিনি জেলা আওয়ামীলীগের প্রস্তাবিত কমিটিতেও তার নাম রয়েছে বলে জানাগেছে। তিনি বগুড়া শহরের রহমান নগর এলাকায় বসবাস করেন। ঈদ উপলক্ষে তিনি গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলেন।
গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিদ মাহমুদ খান জানান, এঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতার করতে পুলিশী তৎপরতা চালাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*