ভোটার আনার দায় রাজনৈতিক দলগুলোর: সিইসি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, বৃহস্পতিবার: ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কম হওয়ার কারণ হিসেবে বৈরী আবহাওয়া আর সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ না থাকাকে দায়ী করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের কম উপস্থিতির দায় নির্বাচন কমিশনের নয়, রাজনৈতিক দলের। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি আরও বাড়বে বলে আশা করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উত্তরার আইইএস উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। পরে সিইসি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ভোটার আনার দায় রাজনৈতিক দলগুলোর। আমরা সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি করে দেই, রাজনৈতিক দলগুলো কিংবা প্রার্থীদের ভোটার নিয়ে আসতে হয়। আমরা বলে দেই পরিবেশ সুষ্ঠু আছে, সবকিছু নিরাপদ আছে এবং সবাই ভোট দিতে আসতে পারে।’
ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার কারণ জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘আমি আগেই বলেছি- দুটি কারণে ভোটার উপস্থিতি কম থাকতে পারে। একটি হচ্ছে- স্বল্প সময়ের জন্য এই নির্বাচন, এক বছর পরে আবার নির্বাচন হবে- সেজন্য কম হতে পারে। আর সব রাজনৈতিক দল অংশ না নেয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হবে না ভেবে ভোটার কম হতে পারে।’
নির্বাচন ব্যবস্থায় কোনো ত্রুটি নেই জানিয়ে নুরুল হুদা বলেন, ‘পোলিং অফিসার, প্রিসাইডিং অফিসার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োগ করে দিয়েছি। নির্বাচনী ব্যবস্থায় কোনো ত্রুটি আছে বলে আমরা মনে করছি না।’
এসময় দুই ঘণ্টায় এই কেন্দ্রে এক শতাংশের কম ভোট পড়ার বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান সাংবাদিকরা। উত্তরে সিইসি বলেন, ‘এখনই বলা যাচ্ছে না। ভোটতো চারটা পর্যন্ত। চারটার পর বলা যাবে- কেমন ভোট পড়ল।’
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচন ও দুই সিটির সম্প্রসারিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদের নির্বাচন শুরু হয়েছে সকাল ৮টায়। ভোট চলবে বিকাল চারটা পর্যন্ত। ডিএনসিসির উপ-নির্বাচনে এবার মোট মেয়র প্রার্থী পাঁচজন৷ আওয়ামী লীগ থেকে আতিকুল ইসলাম, জাতীয় পার্টি থেকে শাফিন আহমেদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি থেকে আনিসুর রহমান দেওয়ান, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির শাহীন খান ও একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রহিম নির্বাচনে অংশ নিয়েছে।
আর সাধারণ ওয়ার্ডে ১১৬ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৪৫জন প্রার্থী রয়েছেন। আর ডিএসসিসির সাধারণ ওয়ার্ডে ১২৫ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৪৫ প্রার্থী আছেন। ঢাকা উত্তরের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে সাতজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আর নয় নম্বর সাধারণ আসনে একজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মোট ভোটার সংখ্যা ২৩ লাখ ৪৫ হাজার ৩৭৪। তাদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১২ লাখ ২৪ হাজার ৭০১ জন। আর নারী ভোটার ১১ লাখ ২০ হাজার ৬৭৩ জন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: