ভুয়া দলিল বানিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ উত্তোলন করে চট্টগ্রামে এক ব্যবসায়ীর উধাও

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ ইংরেজী, বুধবার: চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানাধীন পাহাড়তলী বাজারের মেসার্স জননী মোটর পার্টস সেন্টারের মালিক ভুয়া দলিল বানিয়ে আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ষ্টেশন রোড, চট্টগ্রাম শাখা থেকে ঋণ উত্তোলন করে উধাও হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। উক্ত ব্যবসায়ীর নাম মো: ফখরুল আলম (৪৫) বলে জানা যায়। সে চাদঁপুর জেলার কচুয়া থানার ইসলামপুর গ্রামের মো: শহিদুল্লাহর ছেলে।
অনুসন্ধানে জানা যায়,উক্ত ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম র্দীঘদিন চট্টগ্রামের পাহাড়তলী এলাকায় বসবাস ও কদমতলী এলাকায় ব্যবসা করার সুবাদে এলাকার বিভিন্নজনের সাথে তার সখ্যতা গড়ে উঠে। এর সুবাধে ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম পাহ্ড়াতলী এলাকার মরহুম আলহাজ্ব মোজাফ্ফর আহমদের পরিবারের সাথে বন্ধুত্ব ও ব্যবসায়ীক সর্ম্পক গড়ে উঠে।
উক্ত পরিবারের সাথে বন্ধুত্বের সম্পর্ককে পূঁিজ করে ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম প্রতারণার ফাঁদ পেতে তাদের অগোচরে জায়গার দলিল জাল করে ভুয়া দলিল বানিয়ে আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ষ্টেশন রোড,শাখা থেকে ৫৫ লাখ টাকা ঋণ উত্তোলন করে । যার ভুয়া দলিল নং-২১৮৯৫,তাং-২৮/২২/২০১০ ইং। তফশিল-আর.এস খতিয়ান নং-১২৯,বি.এস খতিয়ান সং-২৩৫,আ.এস দাগ নং-২৬৮০,বি.এস দাগ নং-১২৮৮,সমুদয়-০৬০০ একর তৎ উপরিস্থ পাঁচ তলা পাঁকা বাড়ি।
তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়,তফশিলে উল্লেখিত জায়গার দলিলে জায়গার মুল মালিকদের নাম,ঠিকানা টিক রেখে ছবি ও স্বাক্ষর জালিয়াতি করে উক্ত ২১৮৯৫ নং ভুয়া দলিল সৃষ্টি করে প্রতারক ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম ব্যাংক থেকে ৫৫ লাখ টাকার ঋণ হাতিয়ে নিয়ে গা ঢাকা দেয়।
বর্তমানে প্রতারক ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম গা ঢাকা দেয়ায় এবং ঋণ খেলাপি হওয়ার কারণে কোন কারণ ছাড়াই মরহুম মোজাফ্ফর আহমদ গং চরম সংকটে পড়েছে। ভুক্তভোগী ও ক্ষতিগ্রস্থ মরহুম মোজাফ্ফর আহমদ গং এই বিষয়ে গত ২০/১১/২০১৮ ইংরেজি বাংলাদেশ ব্যাংক এর গভর্ণর বরাবর এবং ২১/১১/২০১৮ ইংরেজি আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবরে লিখিত অভিযোগ ও প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেন। এছাড়াও উক্ত পরিবার প্রতারক ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলমকে আসামী করে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। যাহা সি.আর মামলা নং-১৯০/২০১৯ ইং। তারিখ-২২/০১/২০১৯ ইংরেজি। আদালত উক্ত মামলাটি আমলে নিয়ে সি.আই.ডি কে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা যায়। এব্যাপারে অভিযুক্ত প্রতারক ব্যবসায়ী মো: ফখরুল আলম গা ঢাকা দিয়ে আত্মগোপনে থাকায় তার কোন বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এদিকে ক্ষতিগ্রস্থ মরহুম মোজাফ্ফর আহমদ গং পরিবার এই প্রতিবেদকে অভিযোগ করে বলেন,মামলার জন্য ব্য্ংাকের কাছ থেকে প্রযোজনীয় কাগজের ফটোকপি চাইলে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ষ্টেশন রোড,শাখার ব্যবস্থাপক মো: আলমগীর বিশ হাজার টাকা ঘুষ নেন। তবে এর সত্যতা ০১৮১৪৬৫১০১১ মুটোফোনে উক্ত ব্যবস্থাপকের কাছে জানতে চাইলে তা তিনি এড়িয়ে যান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: