ভারত সরকার মনে করে তিস্তা নদীতে পানির প্রয়োজন নেই: হাফিজ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৪ মে ২০১৭, বৃহস্পতিবার: সরকার ভারতের প্রতি নতজানু বলে তিস্তার পানি আনতে পারেনি বলে দাবি করেছেন বিএনপি নেতা হাফিজউদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে ভারত সরকার মনে করে তিস্তা নদীতে পানির প্রয়োজন নেই। দেশে নির্বাচিত সরকার না থাকার কারণে এই নতজানু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।’ বৃহস্পতিবার দুপুরে লালমনিরহাট সফরে এসে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক পানি সম্পদ মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে এখনও যেসব অমীমাংসিত সমস্যা রয়ে গেছে, তার একটি তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি আটকে থাকা। ২০১১ সালেই এই চুক্তি হওয়ার কথা থাকলেও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের আপত্তিতে তা আটকে যায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক ভারত সফরেও এই চুক্তি হয়নি। তবে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, দুই দেশের বর্তমান সরকারের মেয়াদেই এই চুক্তি হবে।
বিএনপি নেতা হাফিজ বলেন, ‘পানি কোন পৈত্রিক সম্পত্তি নয়, নদীর পানি একটি দেশের মৌলিক অধিকার। পানি নিয়ে মমতা কি বললো সেটা কোন বিষয় নয়, বরং মোদি সরকার কি বলে সেটিই মূল বিষয়।’
নির্বাচন নিয়ে বর্তমান সরকার ছেলেখেলা করছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি নেতা। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ভোট কারচুপি করে ক্ষমতা দখলের অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনে ভোট কারচুপি করলে জনগণের গণআন্দোলনের মুখে পড়বে আওয়ামী লীগ।’
বিএনপির রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব, লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাফিজুল রহমান বাবলাসহ জেলা বিএনপির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*