ব্যবসা বান্ধব নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করি: এনবিআর

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১ মে ২০১৭, সোমবার: জুলাই থেকেই নতুন ভ্যাট আইন কার্যকরের বিরোধিতায় ব্যবসায়ীদের আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে একটি ব্যাখ্যা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।
গতকাল রবিবার এক বিবৃতিতে এনবিআর বলেছে, বাংলাদেশের জনগণ এখনও ১৫ শতাংশ হারে মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট দিচ্ছে। আদায় করা সেই কর যেন ব্যবসায়ীরা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেন, তা নিশ্চিত ও সহজ করবে নতুন আইন।
ব্যবসায়ীদের ‘সম্মানিত ভ্যাট ট্রাস্টি’ হিসেবে বর্ণনা করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বলেছে, জনগণ যে অর্থ ভ্যাট হিসেবে তাদের মাধ্যমে রাষ্ট্রকে দেয়, সেই টাকার ট্রাস্টির দায়িত্ব পালন করেন ব্যবসায়ীরা। যারা ভ্যাট আদায় করেন, অথচ ভোক্তাকে চালান দিতে চান না, দাখিলপত্রের মাধ্যমে আদায়কৃত টাকার হিসাবও দিতে চান না, অনুগ্রহ করে তাদের প্রশ্রয় না দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।
যারা “জনগণের প্রদত্ত অর্থ আত্মসাতের ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য অপপ্রচার চালাচ্ছেন”, তাদের অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে এনবিআর বলেছে, “আসুন ভেদাভেদ ভুলে সকলে মিলে আগামী ১লা জুলাই থেকে ব্যবসা ও বিনিয়োগবান্ধব নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করি। ”
প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের এই ‘মূসক ও সম্পূরক শুল্ক আইন’ কার্যকর করার কথা ছিল গত বছরের ১ জুলাই থেকে। কিন্তু ব্যবসায়ীদের দাবির মুখে তা পিছিয়ে দেয় সরকার। এ নিয়ে গত দুই মাসে ব্যবসায়ীরা অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দুই দফা বৈঠক করলেও সরকারের অবস্থানের নড়চড় হয়নি। বরং গতকাল রবিবার নতুন অর্থবছরের বাজেট নিয়ে এক সভায় এক ব্যবসায়ী আন্দোলনের হুমকি দিলে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: