বোয়ালখালীতে নামজারীর আবেদন বিষয়ে পুনর্বহালের অগ্রগতি জানতে চান এক আবেদনকারী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৫ আগস্ট ২০১৯ইং, সোমবার: চট্টগ্রাম জেলাধীন বোয়ালখালী উপজেলাতে কারণ দর্শানোর নোটিশ হিসেবে আতœপক্ষ সমর্থনের আগাম কোনো সুযোগপত্র না দিয়েই একতরফাভাবে বাতিল করা বি এস নামজারী আবেদনের পুনর্বহাল বা পুনর্বিবেচনা চেয়ে বিভিন্ন সময়ে সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিসে পেশকরা বিভিন্ন আবেদনপত্রের আলোকে এক আবেদকারী “খ” গেজেটভূক্ত অর্পিত সম্পত্তির অবমুক্তি বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদনের তথ্যসেবাপত্র সরবরাহ পেতে আশাবাদ প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়, বোয়ালখালীর শ্রীপুর মৌজার “খ” গেজেটভূক্ত ১১৪৩ নং আর এস খতিয়ানের ১৯৪২ নং, ১৯৪৪ নং, ১৯৪৫ নং, ১৯৪৬ নং ও ১৯৪৭ নং আর এস দাগাদির মোট ৭৬ শতক বা ০১ কানি ১৮ গন্ডা পরিমাপের পুকুর তথা সম্পত্তিকে কেন্দ্র করে রাসবিহারী সেন বংশ নামক মূল মালিকের সম্পত্তির সহঅংশীদার সংজ্ঞাসূত্রে উত্তরাধিকারী মর্মে এমন যুক্তি নামক ভিত্তিতেই উক্ত ৭৬ শতক সম্পত্তির অবমুক্তি চেয়ে শ্রীপুর গ্রামের মৃত মহেন্দ্র লাল দে’র উত্তরসূরী অরুণ বিকাশ দেসহ উত্তরসূরী অন্যান্যরা সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিসে খ/০৩-২৩৭/২০১৫ ইং নং নামজারী বি এস আবেদন জমা দিয়েছেন। কিন্তু পরবর্তীতে নামজারীর আবেদনটি খারিজ বা বাতিলের আগে পর্যাপ্তপরিমাণ সময়ের মধ্যে বা কোনো সময়ের মধ্যে আতœপক্ষ সমর্থনের কোনো নোটিশ তথা সুযোগপত্র পাননি জানিয়ে অরুণ বিকাশ দে উক্ত নামজারী আবেদনের পুনর্বহাল চেয়ে ১৪/০৫/২০১৭ ইং তারিখে চট্টগ্রাম জেলাপ্রশাসক, বোয়ালখালী সহকারীকমিশনার ভূমি (মূলকপি) ও আমুচিয়া ইউনিয়ন ভূমিসহকারী কর্মকর্তার কাছে যথাক্রমে ৪৮১ নং, ৪৮২ নং ও ৪৮৩ নং রেজিস্ট্রী এ/ডি ডাকযোগে ; ২২/০৮/২০১৭ ইং তারিখে চট্টগ্রাম জেলাপ্রশাসক, বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (মূলকপি), বোয়ালখালী সহকারীকমিশনার ভূমি (বোয়ালখালী এসিল্যান্ড) ও আমুচিয়া ইউনিয়ন ভূমিসহকারী কর্মকর্তার কাছে যথাক্রমে ১৪৭ নং, ১৪৮নং, ১৪৯ নং ও ১৫০ নং রেজিস্ট্রী এ/ডি ডাকযোগে এবং ২৫/০২/২০১৮ ইং তারিখে চট্টগ্রাম জেলাপ্রশাসক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ধানমন্ডী কার্য্যালয়ভূক্ত সংখ্যালঘুসেল সদস্যসচিব ও আমুচিয়া ইউনিয়ন ভূমিসহকারী কর্মকর্তার কাছে যথাক্রমে ২৩০ নং,২৩১ নং ও ২৩২ নং রেজিস্ট্রী এ/ডি ডাকযোগে আবেদন পাঠিয়েছেন বলেও জানা যায়। এমতাবস্থায় উক্ত বিভিন্ন রেজিস্ট্রী এ/ডি ডাক নম্বরযুক্ত আবেদনের উল্লেখ রেখে ২০১৮ইং সনের চট্টগ্রাম স্থানীয় মাসিক জ্যোতির্ময় পত্রিকা এপ্রিল সংখ্যার ১০ নং পৃষ্ঠায় “সংখ্যালঘু সেলসহ প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা অর্পিতসম্পত্তির অবমুক্তি পেতে নামজারীর আবেদন ভূক্তভোগীর” এমন শিরোনাম হয়ে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। অবশ্য উক্ত প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির কপি ০৪/০৯/২০১৮ ইং তারিখে প্রধানমন্ত্রী, উক্ত সংখ্যালঘুসেল সদস্যসচিব, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও আমুচিয়া ইউনিয়ন ভূমিসহকারী কর্মকর্তার কাছে যথাক্রমে ০৮৬ নং, ০৮৭ নং, ০৮৮ নং, ০৮৯ নং ও ০৯০ নং রেজিস্ট্রী এ/ডি ডাকযোগে পাঠানো হয়েছে যা উক্ত অগ্রগতি প্রতিবেদনের তথ্যসেবাপত্র সরবরাহ পেতে অব্যাহত থাকা বিলম্বের অবসান চেয়ে ২৩/১২/২০১৮ ইং তারিখে বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(বোয়ালখালী ইউ এন ও) কার্য্যালয়ে জমা দেওয়া মূল আবেদনপত্রে উল্লেখ রয়েছে বলেও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। তবে অর্পিত সম্পত্তির প্রত্যর্পণে বিলম্বের অবসানের মাধ্যমে যাতে ভূক্তভোগীরা সুফল পেতে পারেন সেজন্য আইন প্রয়োগের কার্যকারিতা বাস্তবায়নের পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে ১৬/০৪/২০১৯ ইং তারিখের www.edainikpurbokone.net  পত্রিকার ০৩নং পৃষ্ঠায় প্রকাশিত ভূমিমন্ত্রীর আশ্বাসকে সাধুবাদ জানান ভূক্তভোগী আবেদনকারী অরুণ বিকাশ দে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*