বানান ভুল লিখে ‘বিপদে’ পড়লেন ভারতের এক যুবক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৪ মে ২০১৭, বৃহস্পতিবার: গণিতে বরের দখল না থাকায় কনের বিয়ে ভাঙার কথা আগেই শোনা গেছে। মেনু পছন্দ না হওয়াতেও বিয়ে ভেঙে গিয়েছে সম্প্রতি। আর এ বার বানান ভুল লিখে ‘বিপদে’ পড়লেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের মৈনপুরি এলাকার এক যুবক। হবু বরের বানানের এরকম টালমাটাল অবস্থা দেখে পাকা কথার দিনই বিয়েতে না করে দিলেন কনে।
পাকা দেখার জন্য কথামতো মৈনপুরি জেলার কুরায়ালি এলাকার নুমায়িশ ময়দানে হাজির হয়ে গিয়েছিল পাত্র এবং কন্যাপক্ষ। মেয়ের বাড়ি কুরায়ালি। ছেলে ফারাক্কাবাদের। একে অপরের মধ্যে কথা শুরু হতেই হবু স্ত্রীর হাতে একটা ডায়েরি ধরিয়ে দেয় পাত্র। হিন্দিতে একের পর এক বানান লিখতে বলেন তাকে। সব বানানই এক্কেবারে সঠিক লিখে ফেলে মেয়েটি। এরপরই শুরু হয় হবু বরের পরীক্ষা।
এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ছেলেটিকে হিন্দিতে ‘সাম্প্রদায়িক’ এবং ‘দৃষ্টিকোণ’ এই বানানগুলো লিখতে বলেন পাত্রী। খাতা ‘চেক’ করার সময় ধরা পড়ে একের পর এক ভুল। ওই বানাগুলো তো বটেই, নিজের ঠিকানার বানানটিও ভুল লেখেন পাত্র। উচ্চ মাধ্যমিক পাস পাত্রের এই হাল দেখে তখনই বিয়েতে না করে দেন ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত পড়া মেয়েটি। দুই পরিবারের লোকজনের হাজার অনুরোধেও মানভঞ্জন হয়নি মেয়ের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*