বাণিজ্যের ভাল সম্ভাবনা তৈরি করেছে কালো চাল

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৭ জুলাই ২০১৭, বৃহস্পতিবার: ‘কালো জগতের আলো।’ এটা আর শুধু কালোদের জন্য স্তোকবাক্য নয়। কালো যে জগৎকে, জগতের রসনাকেও আলো দিতে পারে, দেখিয়ে দিচ্ছে কালো চাল। সে দেখতে কালো, কিন্তু খেতে ভাল! আরব দুনিয়া, জাপান হয়ে ইউরোপ, আমেরিকাতেও রফতানি বাণিজ্যের ভাল সম্ভাবনা তৈরি করেছে সেই কালো চাল।
আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, গত অক্টোবরে প্যারিসে বসে ‘সিয়াল’ বা হরেক কিসিমের খাদ্যবস্তুর মেলা। সেখানে ভারতের বর্ধমান-আউশগ্রামের মাঠের কালো চাল দেখে ইউরোপের বহু মানুষেরই চোখ কপালে। সুগন্ধি, তার উপরে কালো চালের পুষ্টিগুণ প্রচুর।
অ্যান্থোসায়ানিনে সমৃদ্ধ বলে তা ক্যানসার প্রতিরোধ করে, অভিমত বিশেষজ্ঞদের। সেই সঙ্গে বার্ধক্য, স্নায়ুরোগ, ডায়াবেটিস, ব্যাক্টেরিয়া সংক্রমণ ঠেকাতেও কার্যকর ওই চাল।
২০০৮ সালে কালো চাল পশ্চিমবঙ্গে প্রথম বার পাওয়া গিয়েছিল ফুলিয়ায়। ধান-গবেষক অনুপল পালের তত্ত্বাবধানে সেই ধান ফলানো হয়েছিল রাজ্যের কৃষি দফতরের প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে। ন’বছরের মধ্যে সেই কালো চালের চাহিদা এখন সাগরপারেও!
আমেরিকা ও আরব দুনিয়ার ব্যবসায়ীরাও কালো চালের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানাচ্ছেন বেঙ্গল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল কমিটির চেয়ারম্যান সত্যব্রত মুখোপাধ্যায়। কিন্তু আলো ছড়ানো সেই কালো চালের পথেও কাঁটা আছে! যথেষ্ট ফলনের অভাবের কাঁটা। এক্সক্লুসিভ নিউজ

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: