বাংলাদেশের ওপর ‘নিষেধাজ্ঞা’ এমন প্রশ্ন ব্রিটিশ পার্লামেন্টে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৫ মে: সাম্প্রতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী নির্বাচন পর্যন্ত বাংলাদেশের ওপর ‘নিষেধাজ্ঞা’ আরোপ করা হবে কি না- এমন প্রশ্ন তুলেছেন যুক্তরাজ্যের এক এমপি। মঙ্গলবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এ পরিস্থিতিতে আগামী নির্বাচন পর্যন্ত বাংলাদেশের ওপর কোনো ‘নিষেধাজ্ঞা’ জারি করা হবে কি না তা জানতে চান এক এমপি।british_parliament
জবাবে যুক্তরাজ্যের মিনিস্টার অব স্টেট, ফরেন ও কমনওয়েলথ অফিস হুগো সয়্যার বলেন, ‘ধর্ম অবমাননায়’ এসব হত্যাকাণ্ড হয়েছে এবং সরকারবিরোধীরা ‘দেশকে অস্থিতিশীল করতে’ এসব ঘটাচ্ছে বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে বক্তব্য দিচ্ছেন তার সঙ্গে তারা একমত নন। তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি, সমস্যা আরও অনেক গভীরে।’
বাংলাদেশে অমুসলিম, সংখ্যালঘু, ব্লগার ও সমকামীদের ওপর হামলা একটি ‘বিরাট সমস্যা’ হয়ে দেখা দিয়েছে মন্তব্য করে মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন হুগো সয়্যার। তিনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে অনেক সাহায্য দিয়ে থাকি। এ বছর এই সাহায্যের পরিমাণ ১৬২ মিলিয়ন পাউন্ড। বার বার মানবাধিকার পরিস্থিতির বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারের কাছে তুলে ধরা হয়েছে।’
প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে ধারাবাহিকভাবে কয়েকজন ব্লগার, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ধর্মগুরু ও বিদেশিকে হত্যা করা হয়। এসব হত্যাকাণ্ডের অনেকগুলোতে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট-আইএস ও আল-কায়েদা ‘দায় স্বীকার’ করে বার্তা দেয়।
তবে বাংলাদেশ এসব জঙ্গি গোষ্ঠীর কোনো অস্তিত্ব নেই দাবি করে এসব হত্যাকাণ্ডের জন্য বিভিন্ন সময় সরকার বিরোধীদের দায়ী করে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*