বন্ধুত্ব হারিয়ে যায় যেসব কারণে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৪ মে: মানুষের জীবনে বেঁচে থাকার অন্যতম অনুসঙ্গ বন্ধুত্ব। বন্ধুত্ব ছাড়া বেঁচে থাকা কঠিন। জীবনের নানা ঝড়-ঝাপ্টা মোকাবেলা করে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা যোগায় বন্ধুত্ব। একজন ভালো বন্ধু জীবন সফলের কারিগরও বটে। তবে কারণে-অকারণে আমাদের অনেক বন্ধুত্ব টেকে না। আসুন জেনে নিই এমন কিছু কারণ যাতে হারিয়ে যায় বন্ধুত্ব।feature
এক. বন্ধুদের মধ্যে কোনো একজন অপরের থেকে বেশি সফল হলেও বিপদ। ইনসিকিওরিটির ফলে ভেঙে যেতে পারে সম্পর্ক।
দুই. বন্ধুত্ব যতই গাঢ় হোক না কেন, জীবনের বিভিন্ন সময়ে সবারই গুরুত্ব বদলে যেতে থাকে।
তিন. সম্পর্কের ভিড় ছাপিয়ে হয়তো বড় হয়ে ওঠে অফিসের কাজ। ফলে তার প্রভাব পড়ে বন্ধুত্বেও।
চার. যেকোনো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতেই প্রচেষ্টার প্রয়োজন। বন্ধুত্বের ক্ষেত্রেও এ কথাটা খাটে।
পাঁচ. সামানাসামনি না হলেও দিনের পর দিন বন্ধুর সঙ্গে যোগাযোগ না করলে নষ্ট হতে পারে সম্পর্ক।
ছয়. দু’জন বন্ধুর মধ্যে একজন অপর কারো প্রেমে পড়লেও নষ্ট হতে পারে বন্ধুত্ব।
সাত. অনেক সময় আপনার কোনো সিদ্ধান্তে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় বন্ধু। এতে নষ্ট হয় বন্ধুত্ব।
আট. দুঃসময়ের নিজের পাশ থেকে বন্ধুরা সরে গেলে তার প্রভাব পড়ে সম্পর্কে।
নয়. ইগোর কারণেও সম্পর্ক ভেঙে যেতে পারে। দু’জনের মধ্যে কেউই সম্পর্ক বাঁচাতে আগ্রহী না হলে তা কিছুতেই টেকে না।
দশ. পজেসিভনেসের ফলে অনেক সময় হারিয়ে যায় বন্ধুত্ব। সম্পর্কের মধ্যে এতে শুধু তিক্তটাই তৈরি হয়।
এগার. জীবন তো সদাই পরিবর্তনশীল। বন্ধুত্বের সম্পর্কেও তাই বদল ঘটে। যে জন্য এক সময় কাউকে বন্ধু বলে মনে হয়েছিল, তা-ই কখনো সখনো বিরক্তিকর হয়ে ওঠে।
বার. তুচ্ছ কারণে হয়তো আপনার সঙ্গে বন্ধুর মনোমালিন্য হয়েছিল। দু’জনের কেউই তা নিয়ে মন খুলে কথা বলেননি। এতেও কিন্তু ভেঙে যায় বন্ধুত্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*