বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠীর উদ্যোগে আলোচনা সভা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৬ জানুয়ারী, ২০১৭, শুক্রবার: মহাজোট সরকারের ৩য় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠী বৃহত্তর চট্টগ্রামের উদ্যোগে সংগঠনের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের সভাপতিত্বে ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভা পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গীতিকার মোহাম্মদ লিপটন। সভায় বক্তারা বলেছেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ছিল গণতন্ত্র সংবিধান রক্ষার নির্বাচন। যদি ৫ জানুয়ারির সাংবিধানিক আইন অনুসারে নির্বাচন না হতো তাহলে দেশে সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টি হতো। সেই সুযোগে ১/১১ এর মত অরাজনৈতিক অন্যকোনো শক্তি ক্ষমতায় আসতে পারতো, তাহলে দেশের সংবিধান ও গণতন্ত্রে অশুভ চক্রান্তে পরিণত হতো তখন সাম্প্রদায়িক ও জঙ্গীবাদীর বিস্তার ঘটত। জননেত্রী শেখ হাসিনা ৫ জানুয়ারি সংবিধান রক্ষার নির্বাচনে তখনকার বিরোধী দলীয় নেত্রীকে বারবার আমন্ত্রণ জানানোর পরও খালেদা জিয়া তা প্রত্যাখান করে হরতাল ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করে দেশের সম্পদ ও নিরীহ মানুষকে হত্যার ষড়যন্ত্র শুরু করলে জননেত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে আওয়ামীলীগ ও মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বিএনপি-জামায়েতের সকল ষড়যন্ত্রের অপচেষ্টাকে রুখে দিয়েছিলেন। দেশরতœ শেখ হাসিনার নিরলস প্রচেষ্টার সংবিধান ও গণতন্ত্র রক্ষায় ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করেন তাতে সংবিধান ও গণতন্ত্র রক্ষা পেল এবং সারা বিশ্বে প্রশংসিত হলো। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ভূমিকার জন্য বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠী বৃহত্তর চট্টগ্রাম নেতৃবৃন্দ অভিনন্দন জানান। এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ সভাপতি হাসিনা জাফর, রাজনীতিক স্বপন সেন, সহ-সভাপতি কণ্ঠশিল্পী আবু তাহের চিশতী, সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রণব রাজ বড়–য়া, সাংগঠনিক সম্পাদক গীতিকার ইসমাইল মানিক, প্রচার সম্পাদক এনামুল হাসান, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবুল বাসার খান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ফাতেমা আক্তার, চলচ্চিত্র সম্পাদক মোস্তারী মোরশেদ স্মৃতি, সুমন দত্ত, ডাঃ বাবলা দাশ, কামাল হোসেন, সমীরণ পাল, মোরশেদুল আলম, কবি সুরমা শারমিন, কণ্ঠশিল্পী মোস্তাক আহমেদ, কণ্ঠশিল্পী রেখা বড়–য়া, আবদুল নূর মনু প্রমুখ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: