বঙ্গবন্ধুতে রাউজান ও বঙ্গমাতায় আনোয়ারা উপজেলা চ্যাম্পিয়ন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইংরেজী, সোমবার: সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সার্বিক আয়োজনে বন্দরের শহীদ প্রকৌশলী সামশুজ্জামান স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের (বালক/বালিকা অনুর্ধ্ব-১৭)-২০১৯ জেলা পর্যায়ের ফাইনাল খেলা আজ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে আনোয়ারা উপজেলা ৩ গোলের ব্যবধানে রাউজান উপজেলাকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়।

অপরদিকে বিকাল ৩টায় অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় রাউজান উপজেলা ৩ গোলের ব্যবধানে বাঁশখালী উপজেলাকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলার চ্যাম্পিয়ন টিম, রানার্সআপ টিম, সেরা খেলোয়াড় ও সর্বোচ্চ গোলদাতার হাতে ট্রফি ও মেডেল তুলে দেন চট্টগ্রাম বিভাগের ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার শংকর রঞ্জন সাহা। চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ইয়াসমিন পারভীন তিবরীজির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত খেলার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আবু হাসান সিদ্দিক, রাউজান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুলসহ রাউজান, বাঁশখালী ও আনোয়ারার উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সংশ্লিষ্ট এসি ল্যান্ড ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর খেলাধুলাকে প্রাধান্য দিয়েছেন। মাদকাসক্তি, জঙ্গিবাদসহ সকল অসামাজিক কর্মকা- থেকে বিরত থাকাসহ দেশপ্রেমিক ও সুনাগরিক হিসেবে জাতি গঠনের লক্ষ্যে তিনি তাঁর পিতা-মাতার নামে সারাদেশে ফুটবল টুর্ণামেন্টের আয়োজন করেছেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও ক্রীড়া চর্চার কোন বিকল্প নেই। কিশোর-কিশোরীদের শারীরিক, মানসিক ও নান্দনিক বিকাশ সাধন, প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সহিষ্ণুতা ও মনোবল বৃদ্ধি করতে ফুটবল খেলা অত্যন্ত জরুরি। পৃথিবীতে যতদিন মানুষের দু’পা থাকবে ততদিন ফুটবল খেলা থাকবে। এটি একটি ঐতিহ্যবাহী খেলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*