ফিলিপাইনের ব্যবসায়ী কিম অং ফেরত দিলেন ৫৩ লাখ ডলার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৫ মে: বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের চুরি যাওয়া অর্থের প্রায় ৫৩ লাখ ডলার ফেরত দিলেন ফিলিপাইনের ক্যাসিনো ব্যবসায়ী কিম অং। বুধবার (৪ মে) এ টাকা হস্তান্তর করা হয়। দেশটির মুদ্রাপাচার বিরোধী সংস্থা এএমএলসির কাছে বুধবার এ অর্থ জমা দেন তিনি।philipain-ferot.
দেশটির গণমাধ্যম ইনকোয়ারার জানিয়েছে, অর্থ জমা দিয়ে কিম বলেছেন, তিনি তার কথা রেখেছেন।
এ নিয়ে এএমএলসির কাছে মোট দেড় কোটি ডলার জমা দিলেন আলোচিত ক্যাসিনো ব্যবসায়ী।
যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার ফিলিপাইনে পাচার হয় ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে। গত ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ অ্যাকাউন্টের গোপন কোর্ড ব্যবহার করে ১০১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার তুলে নেয় দুর্বৃত্তরা। চুরির এ টাকার ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পাঠানো হয় ফিলিপাইনের রিজার্ভ ব্যাংকের মাকাতি সিটির জুপিটার শাখার চার বিশেষ অ্যাকাউন্টে। সেখান থেকে ক্যাসিনো জাংকেট ও ব্যবসায়ীদের অ্যাকাউন্ট হয়ে চলে যায় জুয়ার বোর্ডে।
বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ অ্যাকাউন্ট থেকে চুরির বিপুল অংকের এ টাকা ফিলিপাইনে এনে ভাগ-ভাটোরোয়া করার অভিযোগে আদালতে দায়ের করা মামলায় অভিযুক্তদের একজন কিম অং। দেশটির অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিলের এ মামলাটি দায়ের করে।
বাকি ২০ মিলিয়ন ডলার পাঠানো হয় শ্রীলঙ্কাভিত্তিক বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা শাকিলা ফাউন্ডেশনের নামে। কিন্তু প্রাপক সংস্থার নামের বানানে ভুল থাকায় পেমেন্ট আটকে দেয় ব্যাংক কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*