ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার স্কুলছাত্র তাজ মোহাম্মদ হত্যা মামলার রায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৬ জুন ২০১৭, মঙ্গলবার: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার স্কুলছাত্র তাজ মোহাম্মদ হত্যা মামলার রায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার দুপুরে ফরিদপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।
সাজাপ্রাপ্তরা হলেন শিপন সরদার (২০), আক্তার মুন্সী (২৫) ও হেমায়েত সরদার (২০)। এ ছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত সাকের সরদার ও ভুলু সরদার নামে দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেন।
ওই আদালতের পিপি স্বপন পাল জানান, পূর্ববিরোধের জেরে বোয়ালমারী উপজেলার দাদপুর গ্রামের হারুন-অর-রশীদের একমাত্র ছেলে তাজ মোহাম্মদ (৮)-কে আসামিরা ২০১১ সালের ১৬ জুলাই সকালে অপহরণ করে। তাজ মোহাম্মদ ওই এলাকার রাজাপুর কিন্ডারগার্টেনের প্রথম শ্রেণির ছাত্র। আসামিরা তাজ মোহাম্মদকে অপহরণ করে মোটরসাইকেলে রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার হালুয়ারঘাট এলাকা নিয়ে হত্যা করে লাশ পাট ক্ষেতে লুকিয়ে রাখে।
কোথাও খুঁজে না পেয়ে তাজ মোহাম্মদের বাবা হারুন-অর-রশীদ বাদী হয়ে বোয়ালমারী থানায় একই গ্রামের পাঁচজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আজ মঙ্গলবার আদালত তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করে অপহরণ ও হত্যার দায়ের দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত হেমায়েত সরদার উপস্থিত ছিলেন। সাজাপ্রাপ্ত অন্য দুই আসামি শিপন সরদার ও আক্তার মুন্সী পলাতক রয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: