ফতেহ জামে মসজিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাওলানা মুহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : মানুষের জীবনের সকল ক্ষেত্রে আল্লাহতায়ালার হুকুম তথা আইন কানুন মেনে চলা এবং মুহাম্মদ (সা.) এর আদর্শ অনুযায়ী জীবন যাপন করা তথা সুন্নত ও তরীকা অনুযায়ী চলার নামই হল পূর্ণাঙ্গ ইবাদত। গত ৯ জানুয়ারী জুমার নামাজ পূর্ব আলোচনায় বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, ইসলামী চিন্তাবিদ, ভাষাসৈনিক, Fataha Mosque News-10-01-15চট্টগ্রাম বাংলা কলেজ ও শিশু বাগ স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম প্রিন্সিপাল শামসুদ্দীন মুহাম্মদ ইসহাকের প্রতিষ্ঠিত রাউজান মুহাম্মদপুর ফতেহ জামে মসজিদের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ আলেমেদ্বীন আলহাজ্ব মাওলানা আনোয়ার হোসাইন এ কথা বলেন। উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফতেহ জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিল্পপতি মুহাম্মদ আবু বকর, প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা আনোয়ার হোসাইন আরো বলেন আল্লাহর ঘরের হেফাজত করতে হবে এবং অবাল বৃদ্ধ বণিতা সকলকেই সদা সর্বদা নবীর উপর দরুদ পড়তে হবে তাহলেই আমরা নাজাত পাব। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সঞ্চালকের দায়িত্বে ছিলেন শিশু বাগ আধুনিক শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের পরিচালক শামসুদ্দীন মুহাম্মদ নাসের টিপু, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মসজিদ কমিটির সহ-সভাপতি এস এম নওশাদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শেখ মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, সাবেক মন্ত্রী জহুর আহমদ চৌধুরীর কনিষ্ঠ পুত্র বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক সাইফুদ্দিন রাজু, সাবেক মেম্বার সেকান্দর সওদাগর, আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইউনুস, আলহাজ্ব ইউসুফ, আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইব্রাহিম, মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, ফজলুর রহমান, আহমদ ফয়সল, এস এম শামীম, এস এম শাহীন, রাউজান প্রেসক্লাব সভাপতি মীর আসলাম, শিশুবাগ স্কুলের ধর্মীয় শিক্ষক কুতুব উদ্দিন ও দৈনিক পূর্বদেশের রাউজান প্রতিনিধি তৈয়ব চৌধুরী প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনোয়ার হোসাইন আরো বলেন মরহুম ইসহাক জানিয়েছেন ইসলামের প্রথম বিজয় ফতেহ মক্কায়, সেই নামে ফতেহ মসজিদ নামকরণ করা হয় মুহাম্মদপুরের এই মসজিদ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন অত্র এলাকার কৃতি সন্তান শামসুদ্দিন মুহাম্মদ ইসহাক তার জন্ম এ এলাকায় হওয়ায় এ এলাকা গৌরবৌজ্জ্বল হয়েছে। আজ তার কারণেই মুহাম্মদপুর ধন্য হয়েছে। তার আদর্শ অনুসরণ করলেই এলাকায় শান্তি বিরাজ করবে। তিনি সারা জীবন মানুষের খেদমত করে গেছেন, তিনি বিভিন্ন জায়গায় স্কুল, কলেজ এবং ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সৃষ্টি করে বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। সেই রকম মহৎ প্রাণ ব্যক্তিদের আমরা সম্মান না করলে গুণী ব্যক্তির জন্ম হবে না বলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনোয়ার হোসাইন এ কথা বলেন। ফতেহ জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে এক ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ও  ১০/১২ হাজার মানুষের মেজবানের ব্যবস্থা করা হয়। এতে দেশ বরেণ্য বহু ওলামায়েকেরাম ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*