প্রতিবাদী আবু হেনা আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : জাতীয় সংসদের দু’দুবারের সাবেক সংসদ সদস্য ও অবসরপ্রাপ্ত আমলা আবু হেনা আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন। আগামী নির্বাচনে তিনি রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসন থেকেnews031 নির্বাচন করতে পারেন। বর্তমানে ওই আসনে সংসদ সদস্য রয়েছেন এনা প্রপার্টিজের মালিক ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট আমলে তার এলাকায় বাংলা ভাইয়ের উত্থানের প্রতিবাদ তিনিই করেছিলেন। সরকারকে বারংবার বলেও জঙ্গী তৎপরতা বন্ধ করতে পারেন নি। ওয়ান ইলেভেনের পট পরিবর্তনে তিনি বিএনপির সংস্কারপন্থী অংশে ছিলেন। সজ্জন ও সদালাপী মানুষটি দীর্ঘ আটটি বছর রাজনীতির বাইরেই ছিলেন। এ সময়ে তিনি বেশিরভাগ সময়ই বিদেশে অবস্থান করেছেন। সম্প্রতি রাজনৈতিক ইস্যুতে সরব হয়েছেন। নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্র জানিয়েছে, দীর্ঘ প্রবাস জীবনে তিনি বিএনপির রাজনীতি থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করেছেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছেন। বঙ্গবন্ধু পরিবারের এক সদস্য এ ব্যাপারে তাকে আশ্বস্ত করার পরেই তিনি ঢাকায় সরব হয়েছেন। এতোদিন এ ব্যাপারে বাধা ছিল ওই আসনে তার মনোনয়ন নিশ্চিত করার বিষয়টি। এ বিষয়টিরও একটি সুরাহা হয়েছে। সম্প্রতি একটি পত্রিকায় দেয়া সাক্ষাৎকারে চলমান এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের হরতাল-অবরোধের আওতামুক্ত রাখতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেছেন, এ পরীক্ষায় ১৫ লাখ কোমলমতি ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করছে। তাদের অভিভাবক, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শুভানুধ্যায়ী মিলে প্রায় ১ কোটি মানুষ এ পরীক্ষার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তিনি বলেছেন, এরা আমাদের সন্তান। আমাদের প্রাণের চেয়েও প্রিয়। এরা যাতে নির্বিঘেœ সুন্দর পরিবেশে এবং প্রশান্ত মনে পরীক্ষা শেষ করতে পারে, তাই-ই আমরা সবাই কামনা করি। তিনি বলেন, আমি দুবার রাজশাহীর বাগমারা-মোহনপুর থেকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে এমপি নির্বাচিত হয়েছি। অতীতে যারা বিএনপি থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন, তাদের মধ্যে অনেকের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তারা সবাই চান, ছাত্রছাত্রীদের সবরকম সহযোগিতা করে এ পরীক্ষা সুন্দরভাবে সমাপ্ত করা হোক। এসএসসি পরীক্ষা প্রত্যেকের জীবনের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় দাবি করে তিনি বলেন, এ পরীক্ষার সার্থকতা সবার জীবনে পরবর্তী সাফল্যের চাবিকাঠি। তাই এ পরীক্ষার মাঝে কোনো বিঘœ সৃষ্টি হলে তা হবে দুঃখজনক। এ দেশের সব সচেতন ও বিবেকবান মানুষ চায়, শিক্ষাঙ্গন রাজনীতির বাইরে থাকুক। শিক্ষার পরিবেশ দলীয় রাজনীতি থেকে কলুষমুক্ত হোক। কিন্তু এ আবেদনে সাড়া দেননি খালেদা জিয়া। সুস্থধারার রাজনীতির চিন্তার মানুষ আবু হেনা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কতোটা মানিয়ে নিতে পারেন সেটাই এখন দেখার বিষয়। বিএনপির সঙ্গে তার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে খুব একটা ভালো সময় কাটেনি। সূত্র : আমাদের সময়.কম

Leave a Reply

%d bloggers like this: