প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য শুধু ভাতা নয়, কর্মসংস্থানের সুযোগ চাই: বাজেট পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় বক্তারা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৬ জুন ২০১৭, মঙ্গলবার: ইয়ং পাওয়ার ইন সোশ্যাল এ্যাকশন-ইপসা, সীতাকুন্ড ফেডারেশন অব ডিপিওস, অ্যাকসেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ ডিআরএফ গ্রান্টি কো-অর্ডিনেশন কমিটি যৌথভাবে বাজেট পরবর্তী প্রতিক্রিয়া ও জাতীয়বাজেট ২০১৭-২০১৮ প্রতিবন্ধী  ব্যক্তিদের অবস্থান বিষয়ে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন হয়। আজ ৬ জুন ২০১৭ চট্টগ্রামস্থ প্রেসক্লাব আলহাজ্ব সুলতান আহম্মেদ হলরুমে ঘোষিত বাজেটে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য নানামুখী কার্যক্রমের বিপরীতে মোট ১৭০০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাবকে স্বাগত জানায়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গিয়াসউদ্দীন কাউন্সিলর ১৫, নং ওয়ার্ড, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সাংবাদিক এম. ইাসিরুল হক ও  প্রোগ্রাম মডারেটর হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইপসা’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার ভাস্কর ভট্টাচার্য্য। ভাস্কর ভট্টাচার্য্য বাজেটকে একটি গতানুগতিকও দয়া দাক্ষিণের বাজেট আখ্যাদিয়ে বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের চাহিদার তুলনায় বরাদ্দ খুবই অপ্রতুল। তিনি বলেন, সামাজিক নিরাপত্তা ও সামাজিক ক্ষমতায়ন খাতের বরাদ্দের মাত্র ১.৭৬% প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বাজেট বরাদ্ধ সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। প্রতিবছর যে বাজেট বরাদ্দ হচ্ছে তা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রয়োজনীয়তার নিরিখে হচ্ছে না। এর কারণ হিসেবে বক্তারা নীতি নির্ধারকদেও কল্যাণমুখী ধারণাকে দায়ী করেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা কিছু দাবি পুনর্বিবেচনা করতে অনুরোধ করেন। তারমধ্যে অন্যতম প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা নিশ্চিত করতে উপবৃত্তির সংখ্যা যৌক্তিক পর্যায়ে বাড়ানো, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মানবসম্পদে পরিণত করতে দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানে বাজেট বরাদ্দ, প্রতিবন্ধী ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ শুরু, ডিজিটাল বাংলাদেশের সকল সেবায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্ত করতে তথ্য-প্রযুক্তি সেবাসহ সকল ওয়েবসাইট, সরকারি ই-সার্ভিস প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উপযোগিকরণ ও ভৌত অবকাঠামোগত প্রবেশগম্যতা নিশ্চিত করতে বাজেট বরাদ্দ, প্রবেশগম্য পরিবহন আমদানির ব্যবস্থা, বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ইশারা ভাষা গবেষণা ইনষ্টিটিউট স্থাপন, প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তা উন্নয়ন তহবিলে বরাদ্দ, শিশু বাজেটের ন্যায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্তির জন্য মন্ত্রণালয় ভিত্তিক বাজেট বরাদ্দ চেয়েছেন। পরিশেষে বক্তাগণ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিগণের পক্ষ হতে বরাদ্দকৃত বাজেটএ ‘প্রতিবন্ধীব্যক্তিদের জন্য শুধু ভাতানয়, কর্মসংস্থানের সুযোগচাই‘ এই জোর সুপারিশ পুর্নবিবেচনা ও যথাযথভাবে বাস্তবায়নের উপর জোরদাবী জানান। মতবিনিময় সভায় লিখিত প্রতিক্রিয়া উপস্থাপন করেন সাদিয়া তাজিন, প্রোগ্রামঅফিসার-ইপসা, প্রোগ্রাম সঞ্চালনা করেন ইপসা’র প্রোগ্রাম অফিসার ওমর শাহেদ হিরো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*