পোল্ট্রি খাদ্যের মান যাচাইয়ে প্রাণিসম্পদ ও ক্যাবের যৌথ পরিদর্শন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩১ মার্চ ২০১৯ ইংরেজী, রবিবার: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী ওয়াসি উদ্দীন চট্টগ্রামে ক্যাব’র পোল্ট্রি সেক্টরে সুশাসন প্রকল্পের উদ্যোগে পোল্ট্রি খাদ্যের মান যাচাইয়ে প্রাণিসম্পদ অফিস ও ক্যাব যৌথ পরিদর্শন পর্যবেক্ষণ করেন। ক্যাব ও প্রাণিসম্পদ অফিস কর্তৃক যৌথ মনিটরিং এর অংশ হিসাবে ৩০ মার্চ ২০১৯ইং চট্টগ্রামের মিরেরসরাই উপজেলার মা-মনি পোল্ট্রি, ফাতেমা এগ্রো ডেইরী ফার্মসহ বেশ কয়েকটি খামার সরেজমিনে পরির্দশন করা হয়। পোল্ট্রি ফিডের নমুনা সংগ্রহকালে পরির্দশন টিমের নেতৃতৃ¦ প্রদান করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী ওয়াসি উদ্দীন, বিভাগীয় প্রাণীসম্পদ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডাঃ ফরহাদ হাসেন, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ রেয়াজুল হক জসিম, অতিরিক্ত জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা শাহিদা আকতার, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শ্যামল চন্দ্র পোদ্দার। এ উপলক্ষে পরিদর্শন টিমে অন্যান্যদের মধ্যে অংশনেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব পাঁচলাইশের সেলিম জাহ্ঙ্গাীর, ক্যাব আইবিপি প্রকল্পের মাঠ কর্মকর্তা জেড এইচ শিহাব প্রমুখ। ইউকেএইড, বৃটিশ কাউন্সিলের সহায়তায় প্রকাশ প্রকল্পের কারিগরী সহযোগিতায় পোল্ট্রি সেক্টরে সুশাসন প্রকল্প, কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম পোল্ট্রি সেক্টরে সুশাসন প্রকল্প ও জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের উদ্যোগে খুচরা ও খামার থেকে নমুনা সংগ্রহ করে কেন্দ্রিয় প্রাণিসম্পদ পরীক্ষাগারে প্রেরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পশুসম্পদ কেন্দ্রিয় পরীক্ষাগারে প্রেরণ করা হবে। পরীক্ষার ফলাফল আবার জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে।

পর্যবেক্ষন কালে অতিরিক্ত সচিব কাজী ওয়াসি উদ্দীন সকলের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে ক্যাব ও প্রাণী সম্পদ অফিসের যৌথ মনিটিরিং কার্যক্রম জোরদার করার জন্য আহবান জানান। একই সাথে সাধারন জনগনের মাঝে প্রকৃত সত্য ঘটনা তুলে ধরার আহবান জানান। তিনি বলেন বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমান করেছেন। সেকারনে মোবাইলের এক বাটনে সব তথ্য ভোক্তার কাছে অতিদ্রুত চলে আসবে। ভোগান্তি কমাতে সরকার নানামুখি উদ্যোগ গ্রহন করেছেন, যা পুরোপুরি বাস্তবায়ন হলে জনগন এর সুফল পাবে।

পোল্ট্রি মুরগির খাদ্যের বিষয়ে নানা রকম বিভ্রান্তিকর সংবাদের কারনে দেশের সাধারন মানুষের প্রাণীজ আমিষের সিংহভাগ যোগানদাতা ব্রয়লার পোল্ট্রি মাংশ ও ডিমের বিষয়ে নেতিবাচক ধারনার কারনে সাধারণ জনগনের পুষ্ঠির চাহিদা পুরণ বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। দেশ খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পুর্ন হলেও নিরাপদ খাদ্যের বেলায় প্রচন্ড ঝুুঁকির মধ্যে আছে। অন্যদিকে অনিরাপদ খাদ্যের কারনে মানুষের স্বাভাবিক খাদ্য ও পুষ্টির ঘাটতি পুরণ হচ্ছে না। কারন পুষ্ঠির ঘাটতি হলে শিশুর শারিরিক ও মানষিক বিকাশ বাধাগ্রস্থ হতে পারে, যা কর্মক্ষম জাতি গঠনে বড় অন্তরায়। সেকারনে ব্রয়লার পোল্ট্রির ফিডের গুনগতমান যাচাই করার জন্য সরেজমিনে ব্রয়লার পোল্ট্রির খামার, খুচরা খাদ্য ও ওষুধ বিক্রেতাদের দোকান পরিদর্শনের জন্য মাঠ পর্যায়ে প্রাণী সম্পাদ অফিস ও ক্যাব যৌথ পরিদর্শন কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ নেয়া হয়।

উল্লেখ্য পোল্ট্রি সেক্টরে সুশাসন নিশ্চিতে খুচরা পোল্ট্রি ফিড ও ওষুধের গুনগত মান নিশ্চিত করা, খুচরা বিক্রেতা, ক্ষুদ্র খামারী, ফিড উৎপাদনকারী, খুচরা বিক্রেতা, ওষুধ উৎপাদনকারী ও বিক্রেতাদের মাঝে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্ঠি, সুপারশপ গুলিতে ড্রেসড (প্রক্রিয়াজাতকৃত) মুরগি গুলি জবাইখানায় মানসম্মত ভাবে প্রক্রিয়াজাত নিশ্চিত করা, নিরাপদ খাদ্যের যাবতীয় অনুসরনীয় বিধানগুলি পুরোপুরি মেনে চলা হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে সুপারশপ ও মুরগি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের পরিবেশিত মুরগির মান সরেজমিনে তদারকি করা, নগরীতে প্রক্রিয়াজাতকৃত মুরগি বিক্রিতে নিয়োজিত সুপারশপে সরবরাহকারী, খামারী, ফিড বিক্রেতাদের প্রাণী সম্পদ অফিস ও ক্যাব প্রতিনিধি সমন্বয়ে সরেজমিনে পরিদর্শন, নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে তৃণমূল পর্যায়ে গণসচেতনতা সৃষ্ঠির লক্ষ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, নগরীর হাট-বাজার, প্রান্তিক খামারী পোল্ট্রি খাদ্য বিক্রেতা, খুচরা মুরগি বিক্রেতা পর্যায়ে সচেতনতামুলক কর্মসুচির আয়োজন করা, ভোক্তাদের সক্ষমতা ও নেতৃত্ব উন্নয়নে সহায়তা প্রদান, খুচরা মুরগি বিক্রিতে স্বাস্থ্যসম্মত মডেল বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপনে উৎসাহিত করা, তৃণমূল পর্যায়ে মুরগি উৎপাদনকারী খামার, মুরগির খাদ্য উৎপাদনকারী, খুচরা মুরগি বিক্রেতাদের কর্মকান্ড পর্যবেক্ষনের জন্য মাঠ পর্যায়ে প্রাণী সম্পাদ অফিস ও ক্যাব যৌথ পরিদর্শন কার্যক্রম পরিচালনা করা, পোল্ট্রি সেক্টরে নিরাপদ খোদ্য নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসন, জেলা প্রাণী সম্পদ অফিস ও বিএসটিআই এর ভ্রাম্যমান আদালত, জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের বাজার তদারকি অভিযান জোরদারসহ নানাবিধ কর্মকান্ড পরিচালনা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: