পুলিশ-সন্ত্রাসী লক্ষ্মীপুরে গোলাগুলি: নিহত ১

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ মে: একাধিক মামলার আসামি ইউসুফ নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। আজ বুধবার ভোররাতে উপজেলার কাশিপুর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। আহতরা হলেন, এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন, এসআই রাজিব কর, কনস্টেবল প্লাবন ও মোজাম্মেল হক। আহত পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। নিহত ইউসুফের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি সদর উপজেলার বশিকপুর গ্রামের আলী আহম্মদের ছেলে।lokki
পুলিশ জানায়, ইউসুফ পুলিশের তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে সদর ও চন্দ্রগঞ্জ থানায় তিনটি হত্যা মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। রাত তিনটার দিকে কাশিপুর এলাকায় সন্ত্রাসী ইউসুফ তার সহযোগিদের নিয়ে অবস্থান করছিল এ খবর পেয়ে পুলিশ তাকে ধরতে ওই এলাকায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। পরে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এসময় সন্ত্রাসীদের সঙ্গে পুলিশের বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসী ইউসুফ গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। এসময় চার পুলিশ আহত হয়।
এদিকে নিহতের আত্মীয় স্বজন জানায়, মঙ্গলবার ঢাকার বংশাল থেকে ইউসুফকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে রাতে কাশিপুর এলাকায় ইউসুফকে গুলি করে হত্যার পর বন্দুকযুদ্ধের নাটক সাজিয়েছে পুলিশ। কোন বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেন তারা। সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) মো. নাসিম মিয়া জানান, ইউসুফ পুলিশের তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে তিনটি হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশ-সন্ত্রাসী গোলাগুলিতে ইউসুফ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। এসময় ৪ পুলিশ আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: