পায়ের ব্যথা, ঘরোয়া উপায়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৩ আগস্ট ২০১৯ ইংরেজী, শুক্রবার: হঠাৎ করেই পায়ের ব্যথা শুরু। অসহ্য ব্যথায় দিশেহারা আপনি। বুঝতেও পারছেন না কিভাবে ব্যথা হলো। আসলে পায়ের ব্যথার অনেক কারণ থাকরে পারে। সারাদিন এই পায়ের ওপর দিয়ে অনেক প্রেসার যায়। শরীরে সবথেকে একটিভ কোনো অঙ্গ থাকলে সেটা হলো পা। তাই পায়ের বেলায় কোনো ছাড় দেয়া যাবে না। ব্যথা হলেও প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে নিন। সাধারণত পেশীতে টান পড়া, বৃদ্ধ বয়স, অনেক বেশি হাঁটাসহ বিভিন্ন কারণে হতে পারে পায়ে ব্যথা।

যারা সাধারণত হাঁটতে অভ্যস্ত নন, তাদের পা ফেলতেই খুব কষ্ট হয় লম্বা সময় হাঁটার পর পায়ের ব্যথা হলে খুব কষ্ট হয়, তাৎক্ষণিক ভাবে এই ব্যথা সারাতে আপনি ঘরে বসেই সমাধান পেতে পারেন। আর হিল পরে যারা হেঁটেছেন তাদের তো কথাই নেই! আজ এই পায়ের ব্যথা দূর করা যায় এমন সহজ কিছু উপায় দেখে নিন।

পায়ে ব্যথার কারণ
বৃদ্ধ বয়স, আরামদায়ক জুতো না পরা।
অনেক বেশি হাঁটা
দু’পায়ের ওপর ভর করে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকা
বিভিন্ন ধরণের ফ্রেকচার
দেহে খনিজের অভাব
ডায়াবেটিস ইত্যাদি

বিশ্রাম
অতিরিক্ত হাঁটার পর পা-কে কিছুটা বিশ্রাম দেওয়াই উচিৎ। শরীরের পুরো ভারটা পা থেকে সরিয়ে নেওয়া হলে পা সেরে উঠবে দ্রুত। দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকা, লম্বা সময় হাঁটা এবং সিঁড়ি ভাঙ্গার কাজগুলো আপাতত বন্ধ রাখুন। সম্ভব হলে বিশ্রাম নেবার সময়ে জুতো খুলে রাখুন। এতে পা আরাম পাবে।
ঠাণ্ডা এবং গরম
লম্বা সময় ধরে হাঁটলে পা ব্যথার পাশাপাশি পা ফুলেও যেতে পারে। এক্ষেত্রে ঠাণ্ডা বা গরম সেঁক খুব আরাম দেয়। আইস প্যাক পায়ের ওপর দিয়ে রাখতে পারেন ১৫-২০ মিনিটের জন্য, দিনে ৩ বার। কারও কারও ক্ষেত্রে গরম সেঁক ভালো কাজ করে।
সেক্ষেত্রে হট ওয়াটার ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। হাঁটার পর ২০ মিনিট সহনীয় গরম পানিতে পা ডুবিয়ে রাখতে পারেন। রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে এমন কিছু এসেনশিয়াল এই পানিতে মিশিয়ে নিতে পারেন। করতে পারেন পায়ে ম্যাসাজ। তবে ম্যাসাজ করতে গিয়ে ব্যথা লাগলে তা না করাই ভালো।
পা উঁচু করে রাখুন
হাঁটার সময়ে পায়ে যে চাপ পড়ে মূলত তার জন্যই ব্যথাটা হয়। বিশেষ করে হিল পরলে এই চাপ আরও বেশি হয়। এই ব্যথা কমাতে দিনে কয়েকবার ১৫ মিনিট ধরে আপনার পা উঁচু করে রাখুন। আপনার পেলভিস থেকে কিছুটা উঁচু জায়গায় পা উঠিয়ে বিশ্রাম করলে পা আরাম পাবে।

ম্যাসেজ
উষ্ণ অলিভ ওয়েল, নারকেল তেল অথবা সরিসার তেল একত্রে নিয়ে আক্রান্ত জায়গায় মাখুন।
১০ মিনিট এভাবে ম্যাসাজ করুন।
প্রয়োজন অনুসারে দিনে দুই বা তিনবার এভাবে ম্যাসাজ করুন।
এ ছাড়া গরম পানির মধ্যে লবণ নিয়ে ১৫ মিনিট পা ভিজিয়ে রাখলেও পায়ে ব্যথা অনেকটা কমে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*