পাখার সমস্যার কারণেই বিধ্বস্ত হয় রুশ সামরিক বিমানটি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৬, বৃহস্পতিবার: পাখার সমস্যার কারণেই কৃষ্ণ সাগরে বিধ্বস্ত হয়েছিলো টুপোলেভ-১৫৪ নামের রুশ সামরিক বিমানটি। গত রবিবার বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের ফ্লাইট রেকর্ডার থেকে এমন তথ্য জানা যায়।
ফ্লাইড রেকর্ডারের তথ্য মতে, বিমানটির দুটি পাখা এক সঙ্গে খুলেনি বলেই এক পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ হারান পাইলট। রাশিয়ান গণমাধ্যম জানায়, বিমান ক্রু’র উচ্চারণ করা দুটি শব্দ ছিলো এমন ‘দ্যা ফ্ল্যাপস..হেল!!’ রাশিয়ার অবকাশ কেন্দ্র সোচি থেকে রবিবার স্থানীয় সময় সকাল পাঁচটা ২৫ মিনিটে উড্ডয়নের দুইমিনিট পরেই বিমানের রাডার থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। পরে সোচি উপকূল থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে ৫০ থেকে ৭০ মিটার গভীরে এর ধ্বংসাবশেষ মিলেছে বলে জানানো হয়।
টুপোলেভ-১৫৪ নামের সামরিক বিমানটি রাজধানী মস্কো থেকে যাত্রা শুরু করেছিলে জ্বালি নিতে অবকাশ কেন্দ্র সোচির এডলার বিমানবন্দরে অবতরণ করে।
দুর্ঘটনার পর সরকার ওই বিমানের আরোহীদের নামের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে আটজন সেনাসদস্য, নয়জন সংবাদকর্মী, বিমানের আটজন ক্রু এবং রুশ সেনাবাহিনীর একটি বিখ্যাত সঙ্গীতদল আলেক্সান্দ্রভ-এর ৬৪ জন সদস্য ছিলেন। এরা সিরিয়ার লাটাকিয়ায় রুশ ঘাঁটিতে নববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। রাষ্ট্রীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মানবাধিকারকর্মী ফেয়ার এইড চ্যারিটির নির্বাহী পরিচালক এলিজাভেতা গ্লিংকা এবং দুইজন সরকারি কর্মকর্তাও ছিলেন বিমানটিতে। বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় গত সোমবার পুরো রাশিয়া জুড়ে শোক পালন করা হয়। শুরু থেকেই রুশ সরকার এটিকে কোন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড নয়, বরং দুর্ঘটনা বলেই দাবি করে আসছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*