পাক- ভারত যুদ্ধ !

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, বুধবার: ভারতের বিমান হামলার আগ্রাসনের উপযুক্ত জবাব যথাসময়ে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তান। সম্ভাব্য সবধরনের পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে সশস্ত্র বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।
মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দেশটির শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে শেষে পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গফুর সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।
পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক দ্যা ডন’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ৩টায় ভারতীয় জঙ্গি বিমানের হামলার পর মঙ্গলবার জরুরি বৈঠকে বসে পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে পাঠানো বিবৃতিতে ভারতের অপ্রয়োজনীয় আগ্রাসনের জবাব পাকিস্তান তার সুবিধাজনক সময়ে দেবে বলে জানানো হয়। সম্ভাব্য সবকিছুর জন্য প্রস্তুত থেকে দেশের সশস্ত্র বাহিনীসহ দেশের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হওয়ার জবাবে পাকিস্তানে ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত। এতে পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদের ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত।
তবে ভারতের সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন আসিফ গফুর। তিনি বলেন, ভারতীয় বিমানবাহিনীর যুদ্ধবিমানগুলো মুজফফরাবাদ সেক্টর দিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে ঢুকে পড়লেও পাকিস্তানের কোনো ক্ষতি করতে পারেনি।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলনে মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, ‘যা কিছু ঘটতে যাচ্ছে, তার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। আমরা সবাই প্রস্তুত। এখন আমাদের জবাব দেখার জন্য ভারতের অপেক্ষার পালা।’
ভারতের হামলার পর অর্থমন্ত্রী আসাদ উমর ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী পারভেজ খাট্টাকের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। এসময় তিনি বলেন, ভারত আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘন করেছে। আত্মরক্ষার অধিকার পাকিস্তানের আছে। এ ঘটনার জবাব দেওয়া হবে। পাকিস্তানকে চ্যালেঞ্জ জানানোর দুঃসাহস ভারতের না দেখানোই ভালো।

Leave a Reply

%d bloggers like this: